আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

‘সচিব পর্যায়ে বড় ধরনের রদবদল আসছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী সচিবদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। টানা চতুর্থবারের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর এবারই প্রথম সচিবদের সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী। এই বৈঠকটি নানা কারণে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’

নতুন সরকার দায়িত্ব গ্রহণের পর নতুন মন্ত্রিসভা গঠিত হয়েছে। কিন্তু, এখনও পর্যন্ত সচিব পর্যায়ে তেমন বড় ধরনের রদবদল ঘটেনি। সরকারের দায়িত্বশীল সূত্রগুলো বলছে, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সচিবদের বৈঠকের পরপরই সচিব পর্যায়ে বড় ধরনের রদবদল হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বহু সচিব নতুন সরকারের সাথে সামঞ্জস্য করে, নতুন মন্ত্রীদের সাথে সামঞ্জস্য করে সচিব পর্যায়ে রদবদলের একটি পরিকল্পনা সরকার গ্রহণ করেছে বলে জানা গেছে। বিশেষ করে গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়গুলো, যেখানে কাজের গতি আনা অত্যন্ত প্রয়োজন। সেই সব গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের সচিবের রদবদল হতে পারে। তাছাড়া আগামী জুনের মধ্যে সরকারকে কিছু গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের সচিবের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে হবে, কারণ তাদের অনেকেই অবসরে যাচ্ছেন। তাদের অবসরের পর ওই শূন্যস্থানগুলো কে পূরণ করবে, নাকি তাদেরকে চুক্তিতে আবার নিয়োগ করা হবে, সে বিষয়টি নিয়েও সরকারি নীতি নির্ধারক মহলে আলোচনা চলছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, সচিবদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী সুনির্দিষ্ট কতগুলো নির্দেশনা দিবেন। প্রথমত, নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী দ্রুত কাজ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দেবেন। মন্ত্রীদের সাথে কাজের সমন্বয় সাধন এবং সমন্বিতভাবে কাজ শেষ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী সচিবদের পরামর্শ দেবেন। কোনও ফাইল যেন আটকে না থাকে, সাধারণ জনগণের জন্য হয়রানি না হয়, আমলাতান্ত্রিক দীর্ঘসূত্রিতার জন্য কাজ যেন আটকে না থাকে, সেই বার্তাটি প্রধানমন্ত্রী সুস্পষ্ট দেবেন। তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয়টি তা হলো, দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী সুস্পষ্ট একটি বার্তা দেবেন সচিবদেরকে। এছাড়াও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিসহ বিভিন্ন চলমান ইস্যুতে সংবেদনশীলভাবে দায়িত্ব পালন করার জন্য সচিবদেরকে সুস্পষ্ট নির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী।

গত পাঁচ বছর ধরে দেশে আমলাতন্ত্র অনেক ক্ষমতাবান হয়ে উঠেছে এমন গুঞ্জন রয়েছে। আমলাদের ক্ষমতা মন্ত্রীদের চেয়ে অনেক বেশি এমন কথাও শোনা যাচ্ছে’। বিশেষ করে কভিড পরবর্তী সময়ে সচিবদের ক্ষমতা অনেক বেড়েছে, এমন কথাও বলা হয় বিভিন্ন মহল থেকে। এই অবস্থায় এবারের মন্ত্রিসভায় আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী রাজনীতিবিদদের অন্তর্ভুক্তি বেড়েছে। জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান ও ড. হাছান মাহমুদ, ডা. দীপু মনির মতো আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় নেতারা মন্ত্রীসভায় অন্তর্ভূক্ত হয়েছেন। এই বাস্তবতায় সচিবদের প্রভাব কমতে পারে এমন ধারণা করা হচ্ছে।

তবে, সরকারের নীতিনির্ধারক মহল মনে করে যে, আমলাদের ক্ষমতা বৃদ্ধি বা কম এটি মূল বিষয় না। সরকারের একটি সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য রয়েছে এবং সেই লক্ষ্যের মাপকাঠি হলো নির্বাচনী ইশতেহার। নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী যেন সরকার দ্রুত কাজ করতে পারে এবং জনগণের সেবা প্রদান করতে পারে সে লক্ষ্যেই সচিবরা যেন কাজ করেন যে ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ থাকবে। তবে এই কাজে গতিশীলতা আনার জন্য সামনে সচিব পর্যায়ে বড় ধরণের রদবদলের সম্ভাবনা রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

‘ঢাকা সফরে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির ভাইস মিনিস্টার’

নিজস্ব প্রতিবেদক: চীনা কমিউনিস্ট পার্টির আন্তর্জাতিক দপ্তরের ভাইস মিনিস্টার সুন হাইয়া চার দিনের সফরে ঢাকায় এসেছেন। মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি’) রাত পৌনে ৯টার দিকে একটি বিশেষ

আবরার হত্যায় ২০ জনের মৃত্যুদণ্ড, ৫ জনের যাবজ্জীবন

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় ২০ জনের মৃত্যুদণ্ড ও ৫ জনের যাবজ্জীবনের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে ঢাকার দ্রুত

যশোরের খেজুরের গুড়,মিষ্টি পান ও নকশিকাঁথা পেল জিআই স্বীকৃতি

জেমস আব্দুর রহিম রানা: নতুন করে আরো তিনটি পণ্যকে বাংলাদেশের ভৌগোলিক নির্দেশক (জিআই) পণ্য হিসেবে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। পণ্য ৩টি হলো, যশোরের খেজুরের গুড়, রাজশাহীর

ভাই হত্যার প্রতিশোধ নিতে রনিকে খুন করেন ইসরাজুল

যশোর শহরতলীর চাচড়া বর্মন শ্মশানে রনি হত্যার ঘটনায় রিমান্ডে থাকা আসামি ইসরাজুল ইসলাম (২৫) জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে হত্যার দায় স্বীকার করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

যে দোয়ায় রুটিওয়ালার শেষ ইচ্ছাও পূরণ হলো

ইসতেগফার এমন এক ইবাদত, যা মানুষকে আল্লাহর কাছে ‘মুঝতাঝাবুদ দাওয়াহ’ হিসেবে কবুল করে নেয়। ‘মুঝতাঝাবুদ দাওয়াহ’ হলো এমন ব্যক্তি, যে ব্যক্তি দোয়া করতে দেরি; সে

পুলিশি বাধায় বিদ্যুৎ ভবনে যেতে পারেনি বিএনপি

অসহনীয় লোডশেডিং এবং বিদ্যুৎ খাতে ব্যাপক দুর্নীতির প্রতিবাদে রাজধানীর মতিঝিলে বিদ্যুৎ ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করার কথা ছিল বিএনপির। কিন্তু পুলিশি বাধায় শেষ পর্যন্ত