আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

মরুকে দেখলেই পাগল হয় নারীরা, ২১টি বিয়ে করে এলাকায় হইচই ফেলে দিয়েছেন মরু মিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক: নওগাঁর এক যুবক ১০ বছরে ২১টি বিয়ে করেছেন। তার নাম মরু মিয়া। সে মান্দা উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা। ২১টি বিয়ে করে এলাকায় রীতিমতো হইচই ফেলে দিয়েছেন ওই যুবক। সর্বশেষ বিয়ে করেছেন আদিবাসি এক নারীকে। তবে সব বউয়ের নাম মনে না রাখতে পারলেও ৮ বউয়ের নাম তিনি মনে রাখতে পেরেছেন। মজার বিষয় হলো-মরু মিয়ার যাদেরকে বিয়ে করেছেন তারা সবাই তার চেয়ে বয়সে বড়। কোনো কোনো নারীকে বিয়ে করেছেন বাচ্চাসহ। বর্তমানে তার সঙ্গে তিন বউ থাকলেও বাকি বউয়েরা কোথায় আছেন জানেন না তিনি।’

জানা যায়, মরু মিয়ার বাবা কাজ করতেন বয়লারে (ধানের চাতাল) সেই সুবাদে ছোটবেলা থেকেই তিনি বয়লারে বেড়ে উঠেন। এরপর মরু মিয়া বড় হলে তিনিও যোগ দেন সেই পেশায়। সেই কাজের ফাঁকে প্রায় দশ বছর আগে পরিবারের পছন্দে প্রথম বিয়ে করেন মরু মিয়া। এরপর নানা ঘটনায় একের পর এক বিয়ে করতে থাকেন তিনি। প্রতিবার বাড়ি আসার সময় বউ পরিবর্তন করে আসতেন। এলাকাবাসী সেসব নারীদের পরিচয় জানতে চাইলে নতুন বিয়ে করা স্ত্রী হিসেবে পরিচয় করে দিতেন। তার এমন ঘটনায় এলাকায় রীতিমতো হইচই পড়ে গেছে। বর্তমানে মরু মিয়া শেষ স্ত্রীকে নিয়ে প্রতিদিন ভ্যানযোগে মান্দা ও রাজশাহীর বিভিন্ন হাট-বাজারে সাহায্য চেয়ে জীবিকা নির্বাহ করছেন।

২১টি বিয়ে করার বিষয়ে মরু মিয়া বলেন, কোনো ওষুধ বা বশ করে নয়, তাকে দেখলেই বিয়ের জন্য পাগল হয়ে যেতেন নারীরা। কোনো নারী তাকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে মন খারাপ করবেন ভেবে না বলতেন না। এরপর চলতি পথেই কোনো মৌলভীকে ৫০০ টাকা দিয়ে বিয়ে পড়ে নিতাম। কিছুদিন সংসার করার পর যেখানে বিয়ে সেখান থেকেই বাদ দিয়ে দিতাম। কোনো কাবিননামা না থাকায় কোনো স্ত্রী আইনি প্রক্রিয়ায় যেতে পারে না বলেও জানান তিনি।

মরু মিয়া বলেন, এখনো পর্যন্ত ২১টি বিয়ে করেছি। সর্বশেষ বিয়ে করেছি আদিবাসি এক নারীকে। তবে সব বউয়ের নাম মনে না রাখতে পারলেও ৮ বউয়ের নাম তিনি মনে রাখতে পেরেছেন। তারা হলেন-শহিদা, নার্গিস, সেলিনা, আলেয়া, তারা, জোসনা, রাবেয়া ও পারুল। যাদেরকে বিয়ে করেছি তারা সবাই এক বাচ্চা বা দুই বাচ্চার মা। আমাকে দেখার পর তারাই বিয়ে করে। আমার থেকে বয়সে বড় হওয়ায় আমি তাদেরকে কিছু বলতেও পারি না। এইভাবে এখনো পর্যন্ত ২১টি বিয়ে করেছি। এখন তিনটি বউ একসঙ্গে একই বাড়িতে আছে। তবে সবাই আলাদা আলাদা থাকেন।

এই মরু মিয়া জানান, প্রায় দুই বছর আগে সড়ক দুর্ঘটনা পায়ে আঘাত পান। এরপর থেকে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলেন। কোনো ভারি কাজ করতে পারেন না। সেসময় শেষ বউ ছাড়া কেউ সেবা যত্ন না করলে নিয়ত করেন আরও কোনো বিয়ে করবেন না এবং কেউ যেন কখনও তার মতো এতগুলো বিয়ে করে ভুল না করে সেই কথাও জানান।’

বর্তমানে মরু মিয়া শেষ স্ত্রীকে নিয়ে প্রতিদিন ভ্যানযোগে মান্দা ও রাজশাহীর বিভিন্ন হাট-বাজারে সাহায্য চেয়ে জীবিকা নির্বাহ করছেন। নিজের কোনো জায়গা জমি না থাকায় সরকারিভাবে ঘর করে দেয়ার দাবি জানান মরু মিয়া।

তার শেষ স্ত্রী তারা বলেন, মোবাইলে আমার সঙ্গে তার (স্বামী’) যোগাযোগ হতো। এরপর বিয়ে হয়। আমি বিয়ে হয়ে এসে দুই বউকে এই বাড়িতে দেখেছি। আমরা বোনের মতোই এখনো মিলেমিশে থাকি। তবে একসাথে থাকতে গেলে দুকথা হলে পরে আবার আমরা আমরা ঠিক হয়ে যাই। কেউ কাউকে হিংসা করি না। তবে তার প্রথম স্ত্রী শহিদা অভিযোগ করেন বলেন, বিয়ের পর থেকেই ভরণ পোষণ দেয়া বন্ধ করে দেয় মরু মিয়া। অনেক কষ্ট দেয়। সন্তানদের কোনো দেখা শুনা করে না।

স্থানীয় আব্দুল গফুর বলেন, মরু প্রথমে তার বাবার ইচ্ছেয় প্রথম বিয়ে করেন। এরপর স্ত্রী রেখে বয়লারে (ধানের চাতাল) চলে যায়। এরপর বাড়ি আসলেই একটি করে মেয়ে নিয়ে আসে। জিজ্ঞাসা করলে বলে স্ত্রী হয়। তবে মেয়েগুলোকে দেখলে মনে হয় মরুর মায়ের চেয়ে বয়স বেশি। তবে বর্তমানে মরু বিভিন্ন হাট-বাজারে সাহায্য চেয়ে জীবিকা নির্বাহ করায় তাকে সরকারিভাবে সহায়তার দাবি জানান তিনি।’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

‘উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি’

নিজস্ব প্রতিবেদক: গত কয়েক বছর ধরে সব নির্বাচন বয়কট করেছে বিএনপি। বাংলাদেশের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বয়কট করার সঙ্গেই হরতালের ডাক দিয়েছিল বিএনপি। কিন্তু এবার

‘দুইশ কেজির মাছ ভেবে তুলতে পারেনি, ডুবুরি এনে দেখলেন ৬শ গ্রাম’

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: সম্প্রতি গোলাপগঞ্জের কুড়া নদীতে এক যুবকের বড়শিতে ধরা পড়া ৬শ গ্রামের ওজনের একটি গাগলা মাছ নিয়ে লঙ্কাকান্ডের সৃষ্টি হয়েছে। রাতে সুুুুরুজ

বাহরাইনের সঙ্গে শক্তিশালী সম্পর্ক চায় বাংলাদেশ’

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাহরাইনের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও শক্তিশালী করতে চায় বাংলাদেশ। এ নিয়ে দুপক্ষই একমত বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। বুধবার (৩ এপ্রিল’) সচিবালয়ে আইন

সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুরে বজ্রপাতে কৃষি জমিতে প্রকৌশলীর মর্মান্তিক মৃত্যু 

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: কৃষি জমিতে সরিষা তুলতে গিয়ে বজ্রপাতে মোঃ হাবিব (৩২) নামের একজন প্রকৌশলীর মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। হাবিব সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার চর কাদাই গ্রামের

[শিক্ষা মূলক গল্প] সেই দিন থেকে, কারো কথা কানে তুলি না – কবির বিন সামাদ

  হ্যা একটা গল্প পড়েছিলাম – এক ব্যক্তি নাকি তার বউ কে নিয়ে গাঁধার পিঠে চড়ে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে কিছু লোক তার সমালোচনা শুরু করলো এই

পার্লারে গিয়ে আইফোন খোয়ালেন প্রেমের টানে বাংলাদেশে আসা ইন্দোনেশিয়ার তরুণী

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: ইন্দোনেশিয়ার তরুণী ইফহা। কাজের সুবাদে সিঙ্গাপুরে থাকার সময় টিকটকে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার শামীম মাদবরের। এরপর