আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

‘ড.ইউনূসের গ্রামীণ ব্যাংকের অনিয়ম নিয়ে ফের অনুসন্ধান শুরু করেছে দুদক’

নিজস্ব প্রতিবেদক: অর্থ আত্মসাৎ ও শ্রম আইন লঙ্ঘন মামলায় মাসে এক দুইবার আদালতে হাজির হতে হচ্ছে নোবেল জয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে। নথি অনুযায়ী, গ্রামীণ কল্যাণকে ৩৯২ কোটি টাকা উপহার দেয় গ্রামীণ ব্যাংক। এই উপহারের টাকা আবার ঋণ হিসেবে গ্রহণ করেছেন ড. ইউনূস। যা নিয়ে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুদক।’

নথি পর্যালোচনা করে দেখা যায়, গ্রামীণ প্যাকেজেস নামের একটি পারিবারিক প্রতিষ্ঠান আছে ড. ইউনুসের। আর এই প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিতে গিয়ে নানা অনিয়মের আশ্রয় নেয়া সব পক্ষই। খোদ গ্রামীণ ব্যাংকের ক্রয় নীতিমালায় ২ লাখ টাকার বেশি কেনাকাটায় দরপত্রের বিধান থাকলেও তার ধারধারেনি গ্রামীণ ব্যাংক। দরপত্র ছাড়াই দেদারসে করেছে কেনাকাটা। এমনকি মানা হয়নি সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত নীতিমালাও।

শুধু তাই নয়, নিজের ভাই মুহাম্মদ ইব্রাহিমকে বানিয়েছেন গ্রামীণ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক। সেখানেও মানা হয়নি নিয়ম। গ্রামীণের এতসব নিয়ম-নীতির লঙ্ঘন নিয়ে বড় পরিসরে দুদকের অনুসন্ধান চলছে বলে জানিয়েছেন, সংস্থাটির আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। তিনি বলেন, গ্রামীণ ব্যাংককে পারিবারিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করেছিলেন নোবেল জয়ী ড. ইউনূস। এটি ভয়ংকর ব্যাপার।

গ্রামীণ ব্যাংকে এসব অনিয়ম নিয়ে নরওয়ের দাতব্য প্রতিষ্ঠান-নোরাড এরই মধ্যে সতর্ক করেছে গ্রামীণ ব্যাংককে। তবে প্রতিষ্ঠানটির সুনামের কথা চিন্তা করে তা প্রকাশ না করার কথা জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

দুদক আইনজীবী বলেন, অনুসন্ধান চলছে। তবে কোন বিষয়ে চলছে সেটা বলতে পারছি না। এই বিষয়টি সেই অনুসন্ধানে আসছে কিনা তাও আমি বলতে পারছি না। যদি না এসে থাকে তবে অবশ্যই আনতে হবে, নয়তো আলাদা করে এ বিষয়ে অনুসন্ধান প্রয়োজন। তবে গ্রামীণ ব্যাংক নিয়ে অনুসন্ধানের বিষয়ে এখনও আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দেয়নি দুদক।’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

দেশের তাপমাত্রা উঠতে পারে ৪০ ডিগ্রি পর্যন্ত, ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা’

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: শীতকে বিদায় দিয়ে বসন্তের হাওয়া বইছে চারপাশে। জানুয়ারিতে তীব্র শীত পার করে বর্তমানে গরম-শীতে মিশ্র আবহাওয়া পরিস্থিতির স্বাদ নিচ্ছে দেশের মানুষ।

রাজধানীতে ‘ভ্রাম্যমাণ পীর’র,তাদের প্রধান টার্গেট ভোরবেলা হাটতে বের হওয়া নারীরা।

নিজস্ব প্রতিনিধি রাজধানীতে ‘ভ্রাম্যমাণ পীর’র দেখা মিলেছে। তাদের প্রধান টার্গেট ভোরবেলা হাটতে বের হওয়া নারীরা। এ ছাড়া রাস্তায় যার সঙ্গে দেখা হচ্ছে হাত মেলানোর পাশাপাশি

সিরাজগঞ্জে চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে এক কিশোরের মৃত্যু

সেলিম রেজা সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে আব্দুল রহমান (১৪) নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় তার সাথে থাকা অপর

‘উনি আমাকে চোর-বদমাশ ছাড়া কিছু মনে করেন না: ড. ইউনূস’

নিজস্ব প্রতিবেদক: ড.মুহাম্মদ ইউনূস বলেছেন, উনি (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) আমাকে দেশে সর্বোচ্চ সন্ত্রাসী, অপরাধী এবং সেরা চোর মনে করেন। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ সময় রাত

‘মিয়ানমারে মর্টার শেল ও গুলির শব্দ, সীমান্তে আতঙ্ক’

নিজস্ব প্রতিবেদক: কক্সবাজারের টেকনাফ হোয়ইক্ষ্যং উনছিপ্রাং সীমান্তে মিয়ানমারের অভ্যন্তরের গোলাগুলি আর মর্টার শেল বিস্ফোরণের বিকট শব্দ থেমে থেমে শোনা যাচ্ছে। শনিবার (১০ফেব্রুয়ারি’) সকাল থেকে এতে

‘স্বামী-সন্তান রেখে প্রেমিকের হাত ধরে ছাড়লেন ঘর, ঠাঁই হলো রাস্তায়’

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: বরিশালে স্বামীকে তালাক দিয়ে তিন বছরের শিশুকন্যাকে ছেড়ে প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে যান এক নারী। ইচ্ছে ছিল পুরানো প্রেমিকের সঙ্গে ঘর বাঁধবেন।