আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

‘আন্দোলনে ব্যর্থতার কারণ অনুসন্ধান করবে বিএনপি’

নিজস্ব প্রতিবেদক: অবশেষে বিএনপি স্বীকার করলো যে, তারা আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছে। আর এই ব্যর্থতার কারণ অনুসন্ধানের জন্য বিএনপি অতি গোপনে একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করেছে। দলের সিনিয়র নেতা ড. আবদুল মঈন খানকে এ কমিটির প্রধান করা হয়েছে। দলের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

তবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির একজন সদস্যকে এই ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি এ ধরনের কমিটি গঠনের কথা অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন যে, বিএনপির আন্দোলন ব্যর্থ হয়নি। আমরা পরাজিতও হইনি, বরং আমরা সরকারের মুখোশ উন্মোচন করতে সক্ষম হয়েছি।

মুখে বিএনপি নেতারা যাই বলুক না কেন নির্বাচন পরবর্তী সময়ে বিএনপির মধ্যে হতাশা ক্রমশ বাড়ছে। এই হতাশা চূড়ান্ত রূপ লাভ করেছে যখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে এবং তার সাথে কাজ করার আগ্রহ ব্যক্ত করে চিঠি লিখেছেন। এই চিঠির পর বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে চরম হতাশা লক্ষ্য করা যাচ্ছে।’

কেন বিএনপির আন্দোলন ব্যর্থ হলো এবং বিএনপির আগামীর কৌশল কি? এনিয়ে বিএনপিতে এখন বড় ধরনের চর্চা হচ্ছে। বিএনপি নেতারা নিজেরা বৈঠক করে এ বিষয়টি নিয়ে আলাপ-আলোচনা করছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির একজন নেতা স্বীকার করেছেন যে, বিএনপির মধ্যে আত্মশুদ্ধি এবং আন্দোলনের ব্যর্থতার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। শুধু আন্দোলনের ব্যর্থতা নয়, ভবিষ্যতে আন্দোলনের কৌশল কি হবে এ নিয়ে বিএনপির মধ্যে আলোচনা হচ্ছে।

বিএনপির মধ্যে এখন ৫টি প্রশ্ন নিয়ে অনুসন্ধান হচ্ছে। প্রথম প্রশ্ন, ২৮ অক্টোবর বিএনপির এ হঠকারিতা কারা করলো? বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে যে, বিএনপি ২৮ অক্টোবর শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে চেয়েছিল। কিন্তু, কারা সেদিন সহিংসতা করেছিল, এটি তাদের কাছে রহস্যময়। বিএনপির কোনো কোনো নেতা প্রকাশ্যে বলেন যে, এটা সরকারের কারসাজি। কিন্তু, ওইদিনের যে সমস্ত তথ্য-উপাত্ত, ভিডিও ফুটেজ তা প্রমাণ করে যে, বিএনপির কিছু উশৃঙ্খল কর্মী এ ঘটনার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত ছিল। এ কারণেই বিএনপি নীতি নির্ধারকরা মনে করে না যে, এসব ঘটনার পেছনে শুধু সরকারের হাত ছিল। তারা মনে করে যে, বিএনপির মধ্যে থেকে কারও কারও সহিংসতার ব্যাপারে উসকানি ছিল।’

দ্বিতীয়ত, বিএনপির নির্বাচনে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত কতটা সঠিক ছিল, তা মূল্যায়ন করা। বিএনপির নেতারা অবশ্য সবসময় বলে থাকেন যে, তাদের নির্বাচনে না যাওয়ার সিদ্ধান্তটি সঠিক ছিল। কারণ, এই নির্বাচনে গেলে ফলাফল কি হতো তা তারা সহজেই অনুমান করতে পারছেন।

তৃতীয় অনুসন্ধানের বিষয় হলো, আন্তর্জাতিক মহল কেনো শেষ মুহুর্তে এসে বিএনপি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিলো, সরকারকে সমর্থন দিলো? বিএনপির নেতারা মনে করছেন, পশ্চিমা বিশ্ব যেভাবে অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের কথা বলেছিল, শেষ পর্যন্ত কেন তারা অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ নির্বাচন থেকে সরে আসলো তা খতিয়ে দেখা দরকার। কারণ, অবাধ-সুষ্ঠু-নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্যই বিএনপি আন্দোলন করেছিলো এবং তাতে পশ্চিমাদের সমর্থন ছিল।

চতুর্থত, নির্বাচনের পরে বিএনপি যে আন্দোলনের কথা বলেছিল সে আন্দোলন কেন তৈরি হচ্ছে না এবং আন্দোলন কেন গতি পাচ্ছে না? এবং পঞ্চমত, বিএনপি ভবিষ্যতে কি করবে, তাদের করণীয় কি? তারা কি সরকারকে সময় দিবে নাকি আবার নতুন করে আন্দোলন করবে? এই প্রশ্নগুলোর উত্তর অনুসন্ধান করছে বিএনপির নেতারা। বিএনপির একজন নেতা স্বীকার করেছেন যে, কর্মীদের মধ্যে হতাশা সৃষ্টি হয়েছে। কর্মীরা বার বার আন্দোলনে ব্যর্থতার দায় কার তা খুঁজতে চাইছেন। আর এ কারণেই একটি তথ্য অনুসন্ধান করে দেখা হচ্ছে যে, আসলে কার দায় কতটুকু’?

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

সিরবজগঞ্জ মৃত্যুদন্ড পাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেফতার

সেলিম রেজা সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরবজগঞ্জে র‍্যাব-১২’র যৌথ অভিযানে চালক-হেলপার হত্যা,মৃত্যুদন্ড সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি শাহাদাৎ হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারী’) সকালে র‍্যাবের একটি প্রেস

স্ত্রীর প্রেম ঠেকাতে না পেরে স্বামীর কাণ্ড

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলায় স্ত্রী সঙ্গে মনোমালিন্যের জেরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন স্বামী প্রতাপ কুমার সাহা (৩৮)। বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার

ওয়াজ চলাকালে গাড়ি ভাঙচুর, খুলে নিয়ে গেল হেডলাইটের বাল্ব, খুলে নিলো দুর্বৃত্তরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ওয়াজ মাহফিল চলাকালে নিজের ব্যক্তিগত গাড়ি ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা, এমন অভিযোগ করেছেন ইসলামী বক্তা মুফতি গিয়াস উদ্দিন আত্ব তাহেরী। বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি’) রাতে

‘শিরীন আখতারের মনোনয়ন নিয়ে কি হয়েছিল’

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাসদের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নেতা শিরীন আখতার শেষ পর্যন্ত জাতীয় সংসদে যেতে পারলেন না। ফেনীর যে আসনটি থেকে তিনি নির্বাচন করতে চেয়েছিলেন সেই আসনে

‘আরও ৯৬৫০ জন নতুন শিক্ষক-কর্মচারী হচ্ছেন এমপিওভুক্ত’

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের বিভিন্ন জেলার বেসরকারি স্কুল-কলেজে নতুন নিয়োগ পাওয়া ৯ হাজার ৬৫০ জন শিক্ষক-কর্মচারীকে এমপিওভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) এমপিও

হেলপারের প্রেমে রাসেল মিয়া মৌসুমি হামিদ 

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: ভালোবাসা দিবসকে সামনে রেখে তরুণ নির্মাতা মাহফুজ খাঁন নির্মাণ করলেন হেলপারের প্রেম, বাস চালক কচি খন্দকার ঐ বাসেরই হেলপার রাসেল মিয়া,নিয়মিত