আজ রবিবার ,১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২২শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি (শরৎকাল)

রাত ১:১৯

৪৮ ঘণ্টা আগে নেগেটিভ, ৬ ঘণ্টা আগে পজিটিভে পণ্ড আমিরাতযাত্রা

দেশের প্রধান দুই বিমানবন্দর শাহজালাল ও শাহ আমানতে সংযুক্ত আরব আমিরাতগামী (ইউএই) যাত্রীদের আরটি-পিসিআর পরীক্ষায় প্রতিদিন গড়ে দুই শতাধিক করোনা পজিটিভ রোগী শনাক্ত হচ্ছে। যাত্রাকালের ৪৮ ঘণ্টা আগে নেগেটিভ নিয়েও যাত্রার ৬ ঘণ্টা আগে পজিটিভ হচ্ছেন অনেক যাত্রী। তাদের মধ্যে প্রবাসী কর্মী ও ভ্রমণকারীই বেশি। সব প্রস্তুতি নিয়েও শেষ মুহূর্তে করোনা পজিটিভ হওয়ায় এসব যাত্রীর ফ্লাইট বাতিল হচ্ছে। এতে তাদের আমিরাতযাত্রা পড়ছে অনিশ্চয়তায়।

ইউএই সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী, প্রবাসী কর্মীসহ সব যাত্রীকে ফ্লাইটের ৪৮ ঘণ্টা আগে একবার এবং ৬ ঘণ্টা আগে আরেকবার বাধ্যতামূলক করোনার নমুনা পরীক্ষা করাতে হয়। রিপোর্ট পজিটিভ হলে যাত্রা বাতিল করে তাদের হাসপাতলে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়।

রাজধানীর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক জানান, বিভিন্ন ফ্লাইটে প্রতিদিন গড়ে দুই থেকে তিন হাজার যাত্রী ইউএই যান। আগে প্রতিদিন হাতেগোনা কিছু যাত্রীর করোনা পজিটিভ পাওয়া যেতো। সম্প্রতি ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ বাড়ার পর দৈনিক গড়ে দুইশোর বেশি যাত্রীর করোনা শনাক্ত হচ্ছে। অথচ ৪৮ ঘণ্টা আগের পরীক্ষায় এসব যাত্রীদের বেশিরভাগেরই রিপোর্ট নেগেটিভ আসছে।

কমিউনিটিতে ওমিক্রনের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ায় যাত্রীরা যাত্রাকালে বাসায় কিংবা রাস্তাঘাটে পরিবার, স্বজন, বন্ধু ও গণপরিবহনে মানুষের সঙ্গে মেশার কারণে সংক্রমিত হচ্ছেন বলে ধারণা করছেন এ কর্মকর্তা।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, আমিরাত সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী গত বছর অর্থাৎ ২০২১ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ইউএইগামী সব যাত্রীকে ফ্লাইট ছাড়ার ছয় ঘণ্টা আগে আরটি-পিসিআর ল্যাবরেটরিতে করোনার নমুনা পরীক্ষা করিয়ে নেগেটিভ সনদ নিয়ে যাত্রা করতে হচ্ছে। যাত্রীদের সুবিধার্থে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনুমোদন পাওয়া বেসরকারি ছয়টি প্রতিষ্ঠান শাহজালালে আটটি আরটি-পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করছে। চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দরে নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে ছয়টি আরটি-পিসিআর ল্যাবে।

গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শাহজালালে স্থাপিত আরটি-পিসিআর ল্যাবে মোট ২ লাখ ৮৭ হাজার ৪৬৬ জন এবং শাহ আমানতে ৮ হাজার ৩৫৯ জন যাত্রীর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে শাহজালালে ২ হাজার ৪৫১ জন ও শাহ আমনতে ৫৫৩ জনের করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়। গতকাল ১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় শাহজালালে ২ হাজার ১৪১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৬৬ জন এবং শাহ আমানতে ৩৮৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা রোগী শনাক্ত হয় ৫০ জন।

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার (২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টা পর্যন্ত সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৩৪৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৬১ জন পজিটিভ রোগী শনাক্ত হয়। এ নিয়ে শাহজালালে মোট ২ লাখ ৮৯ হাজার ১১০ জন যাত্রীর নমুনা পরীক্ষা করে ২ হাজার ৬১৩ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

শাহজালাল বিমানবন্দরে কর্মরত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ জাগো নিউজকে বলেন, ইউএইগামী যাত্রীদের যাত্রার কদিন আগে থেকে বিশেষত যাত্রার কয়েক ঘণ্টা আগে থেকে নিজেকে আইসোলেশন করে ফেলতে হবে। ওমিক্রন দ্রুত ছড়ানোয় কমিউনিটি থেকে কোনো না কোনোভাবে ইউএইগামী যাত্রীরা সংক্রমিত হচ্ছেন বলে মনে করেন তিনি।

সর্বশেষ খবরঃ

আপনার জন্য আরো খবর

উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে