আজ বৃহস্পতিবার ,২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি (শরৎকাল)

রাত ১২:০৯

৪৫ পেরোলেই পেনশন চাই, যৌনপেশাকে শ্রম তালিকায় আনার দাবিতে পথে সোনাগাছি

কেন্দ্রের বিলের বিরুদ্ধে সরব হওয়ায় পুলিশ থেকে সমাজবিরোধীরা প্রতিনিয়ত যৌনকর্মীদের উপরে নির্যাতন করে চলেছে বলে অভিযোগ দুর্বারের।

রবিবার মে দিবস। শ্রমিক দিবসের আগে শনিবার সন্ধ্যাতেই পথে নামছেন সোনাগাছির যৌনকর্মীরা। দাবি, ৪৫ বছর পার হলেই যৌনকর্মীদের পেনশন দিতে হবে সরকারকে। একই ভাবে দাবি, যৌনপেশাকে শ্রম তালিকার অন্তর্ভূক্ত করতে হবে। যৌনকর্মীদের সংগঠন দুর্বার মহিলা সমন্বয় কমিটি দীর্ঘ দিন ধরেই যৌনপেশার সামাজিক ও আইনি স্বীকৃতির দাবিতে আন্দোলন করে আসছে। তবে এখন নতুন করে সরব দুর্বার। সংগঠনের বক্তব্য, কেন্দ্রীয় সরকারের ‘ট্রাফিকিং ইন পার্সনস (প্রিভেনশন, কেয়ার অ্যান্ড রিহাবিলিটেশন) বিল যৌনপেশাকে শেষ করে দিতে পারে। এই বিলে আইনে পরিণত হলে যৌনপেশাকে অপরাধের তালিকায় ফেলা হতে পারে বলেও আশঙ্কা দুর্বারের।

কেন্দ্রের আইনের বিরুদ্ধে যেমন সরব দুর্বার তেমনই পুলিশ থেকে সমাজবিরোধীরা প্রতিনিয়ত যৌনকর্মীদের উপরে নির্যাতন করে চলেছে বলেও অভিযোগ দুর্বারের। এরই প্রতিবাদে শনিবার সন্ধ্যায় সোনাগাছি এলাকায় মশাল মিছিলের ডাক দিয়েছে দুর্বার। উত্তর কলকাতার অবিনাশ কবিরাজ স্ট্রিট থেকে কোম্পানি বাগান মাঠ পর্যন্ত হবে মিছিল।

দুর্বারের দাবি, যৌনকর্মীরা করোনাকালে অত্যান্ত দুর্ভোগের মধ্যে জীবন কাটিয়েছে। এখনও সেই ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে পারেননি বাংলার প্রায় ৬৫ হাজার যৌনকর্মী। এর মধ্যেই কেন্দ্রের বিল নতুন করে ভয় দেখাচ্ছে। দুর্বারের মুখপাত্র মহাশ্বেতা মুখোপাধ্যায়ের কথায়, ‘‘আমরাও মানবপাচার বন্ধ করার পক্ষে। কেউ যাতে পাচারের শিকার হয়ে যৌনপেশায় না আসেন, তা নিশ্চিত করতে অনেক উদ্যোগ নিয়েছি আমরাও। কিন্তু কেন্দ্র যা চাইছে তাতে এই পেশাই বিপদে পড়বে। যৌনকর্মীদের সঙ্গে সঙ্গে তাঁদের সন্তানরাও বিপদের মুখে পড়বেন। এই কারণেই আমরা লাগাতার আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছি। শনিবারের মিছিল তারই অঙ্গ।’’

 

সুত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

সর্বশেষ খবরঃ

আপনার জন্য আরো খবর

উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে