আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

স্বামী তালাক দেবেন, তাই কন্যাসন্তান রেখেই পালিয়ে গেলেন সেই মা’

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: দাম্পত্য জীবনে দুই কন্যা সন্তান রয়েছে। স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির সবার আশা পুত্র সন্তানের। তৃতীয়বার যদি কন্যাসন্তানের জন্ম হয় তাহলে তালাক দেবেন স্বামী। ছেলে সন্তানের আশায় থাকা পাপিয়া খাতুন এবারও কন্যাসন্তানের জন্ম দিলেন। তাই, তালাকের ভয়ে প্রসবের পরই নবজাতককে হাসপাতালের এক রোগীর স্বজনের কাছে রেখে পালিয়ে গেছেন জন্মদাত্রী মা ও তার স্বজনরা।

গত বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। এরপর বিষয়টি জানাজানি হলে অনেকেই নবজাতককে দত্তক নিতে ছুটে আসেন। চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে জরুরি বিভাগে পাপিয়া খাতুন নামে এক প্রসূতিকে আনা হয়। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কেষ্টপুর গ্রামের আলমগীর হোসেনের স্ত্রী পাপিয়া খাতুনকে ভর্তি করেন সঙ্গে আসা স্বজনরা। সকাল পৌনে ৮টার দিকে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসকের কক্ষেই পাপিয়া খাতুন একটি কন্যাশিশুর জন্ম দেন। চিকিৎসক পাপিয়াকে ভর্তি করে গাইনি ওয়ার্ডে পাঠিয়ে দেন। সেখানে ভর্তিরত অবস্থায় বিলকিস বানু নামে এক নারীর কাছে কন্যা সন্তান রেখে হাসপাতাল থেকে চলে যান প্রসূতি ও সঙ্গে থাকা এক স্বজন।

খবর পেয়ে হাসপাতালে আসেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফাতেমা-তুজ-জোহরা, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক সিদ্দিকা সোহেলী রশীদ ও সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ সেকেন্দার আলী। পরে নবজাতকটি সদর হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স মালেকা খাতুনের তত্ত্বাবধায়নে রাখা হয়। বিষয়টি জানাজানি হলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই শিশুটিকে দত্তক নিতে চেয়েছেন।

আলমডাঙ্গা উপজেলার ছত্রপাড়া গ্রামের রেজাউল করিমের স্ত্রী বিলকিস বানু বলেন, গত ২দিন যাবত আমার মেয়ে শারমিন খাতুন গাইনি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন। এ দু-দিন মেয়ের সঙ্গেই আছি। হঠাৎ বৃহস্পতিবার সকালে গাইনি ওয়ার্ডে এক নারী কয়েকজনকে নিজের সদ্য জন্ম হওয়া কন্যাসন্তানটি দিতে চান। তারা সকলে ঠাট্টা করছে বলে ধারণা করেন। আমার মেয়ের জন্য সকালের নাশতা কিনতে যাচ্ছিলাম।’

এ সময় ওই নারী তার কন্যাসন্তানটি আমাকে দিয়ে বলেন, আমার দুইটা কন্যাসন্তান রয়েছে, স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ি সবার ইচ্ছে পুত্র সন্তানের। এবার কন্যাসন্তান হলে স্বামী তালাক দেবেন বলে জানিয়েছে। শ্বশুর বাড়ি যাওয়া চিরতরে বন্ধ হয়ে যাবে। তাই এই সন্তান আপনার কাছে দিয়ে গেলাম। মেয়েকে ভালোমতো দেখাশোনা করবেন। এ কথা বলতে বলতেই কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন ওই নারী।

তিনি আরও বলেন, ওই নারীর সঙ্গে আর একজন ছিল। তিনি কন্যাসন্তানের নানি বলে পরিচয় দিয়েছেন। আমি তাদের অনেক বুঝিয়েছি, তাও তারা সন্তান আমার কাছে রেখে দ্রুত চলে যান। আমি তাৎক্ষণিক নবজাতকটি নিয়ে গাইনি ওয়ার্ডের নার্সের কাছে গিয়ে বিস্তারিত ঘটনাটি জানায়।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা. ওয়াহিদ মাহমুদ রবিন বলেন, জরুরি বিভাগের মধ্যেই ওই প্রসূতি স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় একটি কন্যাশিশু জন্ম দেন। এক রোগীর স্বজনের কাছে জানতে পেরেছি, ওই দম্পতির দুইটি কন্যা সন্তান রয়েছে। আবারও কন্যা সন্তান হলে স্বামী তালাক দেবে বলে জানিয়েছে। তাই, বাচ্চাকে ওই নারীর কাছে রেখে পালিয়ে গেছেন তারা। নবজাতকটি বর্তমানে সদর হাসপাতালে তত্ত্বাবধায়নে রয়েছে এবং সম্পূর্ণ সুস্থ আছে। ওই নারীর পরিচয় শনাক্তে পুলিশ কাজ করছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি’) শেখ সেকেন্দার আলী বলেন, হাসপাতালে ভর্তির সময় তারা যে নাম ও ঠিকানা দিয়েছেন তা যাচাই করা হয়েছে। তারা ভুল তথ্য দিয়েছেন। সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ ও ছবি দেখে ওই নারী ও তার স্বজনদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে। তাদের পেলে নবজাতকটি হস্তান্তর করা হবে।

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফাতেমা-তুজ জোহরা বলেন, কন্যাশিশুটিকে হাসপাতালের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে। সেখানেই আপাতত তার পরিচর্যা হচ্ছে। মা ও পরিবারের সদস্যদের শনাক্ত করে শিশুটিকে ফিরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। এছাড়াও শিশুটির সর্বোত্তম কল্যাণের জন্য আইন এবং বিধি বিধান মেনে যতটুকু করা সম্ভব আমরা তা করবো’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

‘ঢিলেঢালা আন্দোলন নিয়েও কূটনীতি পাড়ায় বিএনপি’

নিজস্ব প্রতিবেদক: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকে অনেকটা ঢিলে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে বিএনপি। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদ এবং একদফা দাবিতে গত মঙ্গলবার থেকে দেশব্যাপী পাঁচ

ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক আসিফের গ্রেপ্তার চায় জাসদ

নিজস্ব প্রতিবেদক: সপ্তম শ্রেণির ইতিহাস ও সমাজিক বিজ্ঞান বইয়ে ট্রান্সজেন্ডার ও হিজড়া বিষয় নিয়ে উস্কানি দেওয়ার মাধ্যমে উত্তেজনা ও অশান্তি সৃষ্টির দায়ে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের অব্যাহতিপ্রাপ্ত

চরভদ্রাসনে পদ্মার ভাঙনে ফসলি জমি বিলীন

ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার সদর ইউনিয়নের টিলারচর গ্রাম হতে চর হরিরামপুরের সবুল্লা শিকদারের ডাঙ্গী গ্রাম পর্যন্ত এক হাজার মিটার জায়গা জুড়ে এই ভাঙন দেখা

ইসরায়েলে আটকে পড়াদের ফেরাচ্ছে ভারত, প্রথম ফ্লাইটে এলো ২১২

ইসরায়েলে আটকে পড়াদের দেশে ফেরাতে শুরু করেছে ভারত। প্রথম ফ্লাইটে ২১২ জন ভারতীয়কে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হয়েছে। শুক্রবার (১৩ অক্টোবার) সকালের দিকে ওই ভারতীয়দের নিয়ে

বাঁশখালীতে প্রথম পরীক্ষামূলক সীউইড চাষ শুরু

শিব্বির আহমদ রানা, বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলা মৎস্য দপ্তর এর উদ্যোগে প্রথমবারের মতো সীউইড চাষ শুরু হয়েছে। ২০২৩-২৪ অর্থবছরে উপজেলা মৎস্য দপ্তরের রাজস্ব

‘আজ নিজের পথে চলার দিবস’

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: আজ ১৭ ফেব্রুয়ারি, ‘আমার পথ’ দিবস। আমি কারও ধার ধারি না কারণ আমার পথে আমি চলি। আমরা নিজেদের ব্যাপারে এমন করে