আজ শুক্রবার ,২রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ই জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি (হেমন্তকাল)

রাত ১:০৩

সুস্থ হয়ে রনি বললেন, ডাক্তার হলো দ্বিতীয় বিধাতা

গাজীপুর জেলা পুলিশ লাইনসে গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরিত হয়ে কৌতুক অভিনেতা রনি, পুলিশ কনস্টেবল জিল্লুরসহ পাঁচজন দগ্ধ ও আহত ব্যক্তিদের প্রথমে স্থানীয় শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

দগ্ধের মাত্রা বেশি হওয়ায় সেখান থেকে ঢাকায় পাঠানো হয় রনি ও জিল্লুর রহমানকে। রনির শরীরের ২৫ শতাংশ এবং জিল্লুরের ১৯ শতাংশ দগ্ধ হয়। তাঁদের শ্বাসনালিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

রাজধানী
সুস্থ হয়ে রনি বললেন ‘ডক্টর ইজ দ্য সেকেন্ড গড’
প্রতিবেদকঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশ: ১৫ অক্টোবর ২০২২, ১৬: ১৭
একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আবু হেনা রনি ও পুলিশ কনস্টেবল জিল্লুর রহমানকে হাসপাতাল থেকে আনুষ্ঠানিক বিদায় জানানো হয়
একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আবু হেনা রনি ও পুলিশ কনস্টেবল জিল্লুর রহমানকে হাসপাতাল থেকে আনুষ্ঠানিক বিদায় জানানো হয়ছবি: প্রথম আলো
প্রায় এক মাসের চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি। তিনি বলেন, ‘আমরা অনেক সময় বলি, মানি ইজ দ্য সেকেন্ড গড। আমি বলব, ডক্টর (চিকিৎসক) ইজ দ্য সেকেন্ড গড।’

সুস্থ হওয়ার পর একটি অনুষ্ঠান করে রনি ও পুলিশ কনস্টেবল জিল্লুর রহমানকে হাসপাতাল থেকে আনুষ্ঠানিক বিদায় জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন ও ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক সামন্ত লাল সেনসহ সংশ্লিষ্টরা।

গাজীপুর জেলা পুলিশ লাইনসে গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরিত হয়ে কৌতুক অভিনেতা রনি, পুলিশ কনস্টেবল জিল্লুরসহ পাঁচজন দগ্ধ ও আহত ব্যক্তিদের প্রথমে স্থানীয় শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। দগ্ধের মাত্রা বেশি হওয়ায় সেখান থেকে ঢাকায় পাঠানো হয় রনি ও জিল্লুর রহমানকে। রনির শরীরের ২৫ শতাংশ এবং জিল্লুরের ১৯ শতাংশ দগ্ধ হয়। তাঁদের শ্বাসনালিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

প্রায় এক মাস ধরে রাজধানীর চানখাঁরপুলে অবস্থিত শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে আবু হেনা রনি ও জিল্লুর রহমানের চিকিৎসা চলে। সুস্থ হওয়ার পর আজ দুপুরে ইনস্টিটিউটের তৃতীয় তলায় অধ্যাপক লুৎফর কাদের লেনিন মেমোরিয়াল লেকচার হলে সংবাদ সম্মেলন করে তাঁদের হাসপাতাল থেকে আনুষ্ঠানিক বিদায় জানানো হয়।

এ সময় নিজের অনুভূতির কথা বলতে গিয়ে রনি বলেন, ‘শুকরিয়া আদায় করছি তাঁদের কাছে, যাঁরা আমাকে সুস্থতা দিয়েছেন, নতুন একটা জীবন দিয়েছেন। আমরা অনেক সময় বলি, মানি ইজ দ্য সেকেন্ড গড। আমি বলব, ডক্টর ইজ দ্য সেকেন্ড গড। পোড়ার কষ্ট যে কতটা, তা না পুড়লে আমি বুঝতাম না। চিকিৎসক, নার্সসহ সবাইকে অনেক কৃতজ্ঞতা। কৃতজ্ঞতা আইজিপি মহোদয়সহ পুলিশের মানবিক কর্মকর্তাদের। আমার স্বপ্ন ছিল, যা-ই হোক, আমি এখান থেকেই সুস্থ হয়ে ফিরব।’

সর্বশেষ খবরঃ

আপনার জন্য আরো খবর

উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে