আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

‘যুক্তরাষ্ট্র কেন বিএনপি এবং সুশীলদের উপর আস্থা রাখতে পারল না’

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তার অবস্থান পুর্নব্যক্ত করেছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেছেন, বাংলাদেশের ৭ই জানুয়ারির নির্বাচন ত্রুটিপূর্ণ ছিল কিন্তু এটা সত্ত্বেও বাংলাদেশের সঙ্গে তারা সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যাবে। শুধুমাত্র ওয়াশিংটন থেকে যে এ বার্তা দেওয়া হচ্ছে যে তা না। নিজের দায়িত্বপালনের ২ বছর পূর্তি উপলক্ষে বিভিন্ন গণমাধ্যমে লেখা এক কলামে মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার ডি. হাস বলেছেন, বাংলাদেশের সাথে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যাবে এবং সেখানে বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ত্রুটি, গণমাধ্যমের অধিকার হরণসহ বিভিন্ন প্রসঙ্গ আনলেও পিটার হাস সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার বার্তাটির উপরই জোড় দিয়েছেন

প্রশ্ন হলো যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কেন বাংলাদেশে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে থাকলো না’?

যদিও অনেকে মনে করছেন, ভারতের প্রভাবের কারণেই শেষপর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তার অবস্থান থেকে সরে এসেছে। কিন্তু একাধিক কূটনৈতিক সূত্র মনে করছে যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র শুধুমাত্র ভারতের কারণেই তাদের কৌশল পরিবর্তন করবে না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রনীতির নিজস্ব নীতি, এজেন্ডা ও কৌশল রয়েছে। তারা যেকোন নীতি, এজেন্ডা এবং কৌশল বাস্তবায়ন করে তাদের স্বার্থ বিবেচনা করে।

বিভিন্ন কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যে সমস্ত দেশে আগ্রাসন চালিয়েছে, যে সমস্ত দেশে সরকারকে বদল করেছে বা ক্ষমতাচ্যুত করেছে। প্রত্যেকটি দেশে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আগে একটি বিকল্প চূড়ান্ত করেছিল। বিকল্প চূড়ান্ত না করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কোথাও ক্ষমতার পালাবদল ঘটায় না।

বাংলাদেশের ক্ষেত্রে যেটি হয়েছে তা হল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প তারা তৈরি করতে পারেননি। আওয়ামী লীগ বা শেখ হাসিনার বিকল্প হিসাবে দু’টি সম্ভাব্য বিকল্প তাদের কাছে ছিল। একটি হলো বিএনপি অন্যটি হলো সুশীল সমাজ। বিএনপি নিজেও এখন ক্ষমতায় আসতে আগ্রহী না। বিএনপি সবসময় মনে করে যে, কোন কারণে যদি আওয়ামী লীগ ক্ষমতা ছেড়ে দেয় বা ক্ষমতা চলে যায় তাহলে মাঝখানে একটি অন্তর্বর্তীকালীন একটি সরকার রাখবে’। কারণ, বিএনপির এখন যে অবস্থা তাতে বিএনপির কোন নীতি নির্ধারকই সরকার প্রধান হওয়ার যোগ্য না। বিশেষ করে দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এবং লন্ডনে পলাতক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়া দু’জনেই নির্বাচনের অযোগ্য। আর এটি বিএনপি ভালো করেই জানে তাই বিএনপি সরাসরি আওয়ামী লীগকে হটিয়ে ক্ষমতায় আসতে চায় না। এই কারণেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিএপির ব্যাপারে আগ্রহী না।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহের জায়গা ছিল সুশীল সমাজ এবং এখানে তারা ড. মোঃ ইউনুসের নেতৃত্বে একটি সুশীল মেরুকরণ করতে চেয়েছিল বলেই অনেকেই মনে করে। যেমনটি তারা করেছিল এক এগারোর সময়। কিন্তু এক এগারোর অভিজ্ঞতার কারণেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সুশীলদের উপর নির্ভরতার উপর থেকে সরে এসেছে বলে বিভিন্ন মহল মনে করে।

এক এগারোতে মার্কিন প্রভাবের কারণেই সেনা সমর্থিত সুশীল সমাজ ক্ষমতা গ্রহণ করেছিলো। কিন্তু সে ক্ষমতা গ্রহণের ফলাফল ইতিবাচক হয়নি। বরং সুশীলরা যে দায়িত্ব পালনে কতটুকু অযোগ্য ও ব্যর্থ সেটি প্রমাণিত হয়েছে। সে অভিজ্ঞতা থেকেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে ক্ষমতার পালাবদল ঘটিয়ে কোন সুশীলদেরকে আনতে চায়নি। কারণ, এরকম সঙ্কটময় সময় এবং রাজনীতির কঠিন সন্ধিক্ষণে সুশীলরা এসে শেখ হাসিনার বিকল্প হতে পারবেন না।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি পর্যবেক্ষণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তারা দেখেছে যে, আওয়ামী লীগ নিয়ে অনেক ত্রুটি-বিচ্যুতি রয়েছে। আওয়ামী লীগ নিয়ে অনেক সমালোচনা এবং অভিযোগও রয়েছে। কিন্তু সাধারণ মানুষের মধ্যে শেখ হাসিনার ব্যাপারে একটি ইতিবাচক মনোভাব রয়েছে এবং শেখ হাসিনা ব্যাপকভাবে জনপ্রিয়। আর এ কারণেই শেষ পর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি বা সুশীলদের উপর নির্ভর করতে পারেনি।’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

ছোট বোনকে সঙ্গে নিয়ে টুঙ্গিপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী

পদ্মা সেতুর রেলপথ উদ্বোধন ও ফরিদপুরের ভাঙ্গায় আয়োজিত জনসভা শেষে ব্যক্তিগত সফরে নিজ জন্মস্থান গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় ছোট বোন শেখ

বইমেলায় থাকছে কথাসাহিত্যিক জসিম উদ্দিন মনছুরির গল্পগ্রন্থ ‘নীল সমাধির স্মৃতি’

শিব্বির আহমদ রানা, বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হচ্ছে তাঁর অনন্য গল্পগ্রন্থ ‘নীল সমাধির স্মৃতি’। বইটির লেখক ‘কবি ও কথাসাহিত্যিক’ জসিম উদ্দিন মনছুরি।

নেতাকে ফাঁসাতে গিয়ে আওয়ামী লীগ কর্মী গ্রেপ্তার’

নিজস্ব প্রতিবেদক: নড়াইলের লোহাগড়ায় দ্বন্দ্বের জেরে আওয়ামী লীগের এক নেতাকে ইয়াবা ট্যাবলেট দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে আওয়ামী লীগের আরেক কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ৫০০টি

ইসরায়েলে আটকে পড়াদের ফেরাচ্ছে ভারত, প্রথম ফ্লাইটে এলো ২১২

ইসরায়েলে আটকে পড়াদের দেশে ফেরাতে শুরু করেছে ভারত। প্রথম ফ্লাইটে ২১২ জন ভারতীয়কে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হয়েছে। শুক্রবার (১৩ অক্টোবার) সকালের দিকে ওই ভারতীয়দের নিয়ে

বেলকুচিতে গরু ধর্ষনের অভিযোগ তিন সন্তানের জনকের বিরুদ্ধে

সবুজ সরকার বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে গরু ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে তিন সন্তানের জনকের বিরুদ্ধে। তিনি উপজেলার ভাঙ্গাবাড়ি ইউনিয়নের আদাচাকী মধ্যপাড়া গ্রামের রহিম কাবুলের ছেলে

‘ভারতের নির্বাচন: বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলো কে কার পক্ষে’

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারতের লোকসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ১৯ এপ্রিল থেকে সাত দফায় ভোটগ্রহণ হবে বিশ্বের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক এই রাষ্ট্রটিতে। আগামী ৪ জুন