আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

‘বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যাংক জালিয়াতির দায়ে ভিয়েতনামের ধনকুবেরের মৃত্যুদণ্ড’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভিয়েতনামের এক শীর্ষস্থানীয় ধনী ব্যবসায়ী ৪৪ বিলিয়ন ডলার আত্মসাতের মামলায় মৃত্যুদণ্ডর মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যাংক জালিয়াতির ঘটনা এটি। বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) তিনিসহ কয়েক ডজন আসামির বিরুদ্ধে এই অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ আদালতে প্রমাণিত হয়েছে।

ভিয়েতনাম এক্সপ্রেসের তথ্য অনুযায়ী, অভিযুক্ত ট্রুং মাই ল্যান একটি ডেভেলপার কোম্পানির চেয়ারপারসন। তিনি ভিয়েতনামের সাইগন কমার্শিয়াল ব্যাংক (এসসিবি) থেকে এক দশক ধরে জালিয়াতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিপুল অঙ্কের অর্থ আত্মসাৎ করেছেন বলে অভিযোগে উঠে এসেছে।

ল্যান এবং অন্য ৮৫ জন পাঁচ সপ্তাহের বিচারকার্যের পরে ভিয়েতনামের ব্যবসাকেন্দ্র হো চি মিন সিটিতে আদালতের রায় ঘোষণার অপেক্ষায় রয়েছেন। অভিযুক্তদের তালিকায় সাবেক কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্মকর্তা, সাবেক সরকারি কর্মকর্তা এবং পূর্ববর্তী এসসিবি নির্বাহীরা রয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে ঘুষ, ক্ষমতার অপব্যবহার, জালিয়াতি এবং ব্যাংকিং আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ রয়েছে’।

তবে ল্যান অভিযোগ অস্বীকার করে তার অধস্তনদের ওপর দোষ চাপিয়েছেন। তার আইনজীবীরা বলেছেন, তিনি কোনো ধরনের তছরুপের সঙ্গে সম্পৃক্ত নন, কারণ এসসিবিতে তার কোনো আনুষ্ঠানিক পদ নেই।

তবে বিচারকরা এই যুক্তি মানেননি। তারা বলেছেন, এসসিবি ব্যাংকের ৯১ দশমিক ৫ শতাংশের শেয়ারের মালিক ল্যান। সুতরাং ব্যাংকে তিনিই ছিলেন সর্বোচ্চ ক্ষমতার অধিকারী। প্রকৃতপক্ষে তিনিই ব্যাংকের মালিক। তিনিই ঋণ অনুমোদনের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। পাশাপাশি ব্যাংকের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা নিয়োগেও তার হাত ছিল।’

ভিয়েতনামে দীর্ঘ অভিজ্ঞতাসম্পন্ন মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডেভিড ব্রাউন বলেন, আমার মনে হয়, কমিউনিস্ট যুগে এ ধরনের শো ট্রায়াল আগে কখনো হয়নি।

কমিউনিস্ট পার্টির সেক্রেটারি জেনারেল নগুয়েন ফু ট্রংয়ের নেতৃত্বে ‘ব্লেজিং ফার্নেস দুর্নীতি’ বিরোধী প্রচারণার এ পর্যন্ত সবচেয়ে নাটকীয় অধ্যায় ছিল এই বিচার।’

এদিকে ল্যান গত সপ্তাহে আদালতে তার শেষ মন্তব্যে বলেছেন, তিনি আত্মহত্যার কথা ভেবেছিলেন। তিনি বলেন, ‘হতাশার মধ্যে ডুবে গিয়ে আমি মৃত্যুর কথা ভেবেছিলাম। আমি এতটাই ক্ষুব্ধ যে, এই অত্যন্ত ভয়ংকর ব্যবসায়িক পরিবেশে জড়িয়ে পড়ার জন্য আমি এতটা বোকা ছিলাম! ব্যাংকিং সেক্টর সম্পর্কে আমার জ্ঞান খুব কম।’

২০২২ সালের অক্টোবরে ল্যানকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই সময় শত শত মানুষ রাজধানী হ্যানয় এবং হো চি মিন সিটিতে বিক্ষোভ শুরু করে। একদলীয় কমিউনিস্ট রাষ্ট্রে এটি ছিল বিরল ঘটনা।

গতকাল বুধবার হ্যানয়ে স্টেট ব্যাংক অব ভিয়েতনামের বাইরে প্রচুর পুলিশের উপস্থিতি দেখা গেছে। এখানেই এর আগে বিক্ষোভ হয়েছিল। পুলিশ এই আর্থিক কেলেঙ্কারির প্রায় ৪২ হাজার ভুক্তভোগীকে চিহ্নিত করেছে। এ ঘটনা প্রকাশিত হওয়ার পর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশটির সরকার ও সাধারণ মানুষ হতবাক হয়েছে।

ল্যান বিয়ে করেছেন হংকংয়ের একজন ধনী ব্যবসায়ীকে। তিনিও এখন বিচারাধীন। তার বিরুদ্ধে এসসিবি থেকে ঋণ নিতে জাল নথিপত্র ব্যবহার করার অভিযোগ রয়েছে। ল্যান এই ব্যাংকের ৯০ শতাংশের বেশি শেয়ারের মালিক ছিলেন।’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

চিত্রনায়ক সোহেল চৌধুরী হত্যা মামলার রায় আজ

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: নব্বই দশকের চিত্রনায়ক সোহেল চৌধুরী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ব্যবসায়ী আজিজ মোহাম্মদ ভাই ওরফে আব্দুল আজিজসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে করা মামলার রায় ঘোষণা

লক্ষ্মীপুরে রোগীর স্বজনকে পিটালেন চিকিৎসকের স্বামী’

নিজস্ব প্রতিবেদক: লক্ষ্মীপুরে গাইনী কেয়ার নামে এক ডায়াগনস্টিক সেন্টারে হয়রানির শিকার এক রোগীর স্বজনকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে চিকিৎসকের স্বামী ও স্টাফদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনার পর

ইসরায়েল গণহত্যা চালাচ্ছে, আমরা গাজা ছাড়ব না : হামাস প্রধান

ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস প্রধান ইসমাইল হানিয়া বলেছেন, ফিলিস্তিনি সাধারণ মানুষ কখনো গাজা ছাড়বে না এবং তারা কোথাও যাবে না।   শনিবার (১৪ অক্টোবর) এক

বেলকুচিতে টাকা ছিনিয়ে নিতে না পেরে যুবকের হাত ভেঙে দিলো ছিনতাইকারী,আটক ১

মোঃ মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের বেলকুচি পৌর এলাকায় মাসুদ প্রামানিক (২১) নামের এক যুবকের পকেট থেকে টাকা ছিনিয়ে নিতে না পেরে তাকে মারধর করে

সুদের টাকা না দিতে পেরে মহাসিনকে হত্যা, আটক লিখনের স্বীকারোক্তি

জেমস আব্দুর রহিম রানা: চড়া সুদের টাকা দিতে না পারায় গালিগালাজ করেছিলো হত্যার শিকার হওয়া মহাসিন। সেই রাগে অফিসের মধ্যেই ইলেক্ট্রিক তার দিয়ে প্রথমে শ্বাসরোধ

গ্রামীণ কল্যাণ নিয়ে ড. ইউনূসের লুকোচুরি ধরে ফেলেছে বিদেশিরা’

নিজস্ব প্রতিবেদক: ড.ইউনূস গ্রামীণ কল্যাণ নিয়ে রীতিমতো নাটক করছেন। তিনি বলছেন যে, গ্রামীণ কল্যাণ তার ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠান। ইতোমধ্যে হাইকোর্ট গ্রামীণ কল্যাণকে ২০১১ সাল থেকে এ