আজ শনিবার ,১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২রা আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২১শে সফর, ১৪৪৪ হিজরি (শরৎকাল)

সন্ধ্যা ৭:৪৮

বিকালে ফিরছেন মুরাদ, বিমানবন্দরে প্রতিরোধের ডাক

তুমুল বিতর্কের মুখে সদ্য পদত্যাগ করা তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান দেশ ছেড়ে কানাডায় উড়াল দিয়েছিলেন। কিন্তু আওয়ামী লীগের এই সংসদ সদস্যকে, এমপি, দেশটিতে ঢুকতে না দিয়ে দুবাইয়ের ফিরতি ফ্লাইটে তুলে দেয়া হয়। সেদেশেও প্রবেশ করতে না পেরে দীর্ঘ সময় ধরে সংযুক্ত আরব আমিরাতের এই বিমানবন্দরে থাকতে হয় তাকে।

 

সেখান থেকে আজ রোববার বিকালে বাংলাদেশের উদ্দেশে রওনা হওয়ার কথা রয়েছে দেশব্যাপী জোর আলোচনা-সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা মুরাদের। একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে, দুবাইয়ের ভিসা পেতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেও ব্যর্থ হওয়ায় নিজ দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

 

সূত্রমতে, রাজধানীর বনানীর ডানা এভিয়েশনের মাধ্যমে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ইকে-৫৮৬ ফ্লাইটে ক্লাস ক্যাটাগরির ফেরার টিকিট কিনেছেন মুরাদ হাসান। ফ্লাইটটি বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টা ৫৫ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছার কথা রয়েছে।

সূত্র আরো জানায়, সবশেষ করোনা পরীক্ষার স্যাম্পল দিয়ে দুবাই বিমানবন্দরের ৩ নম্বর টার্মিনালের এমিরেটসের লাউঞ্জে রয়েছেন মুরাদ। যাবতীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে যথাসময়ে দেশের উদ্দেশে দুবাই ছাড়বেন তিনি।

এদিকে, মুরাদ হাসানের দেশে ফেরা ঠেকাতে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সড়কে বিক্ষোভ করেছেন বেশ কিছু লোক। আওয়ামী লীগের কর্মী দাবি করা এসব মানুষ বিমানবন্দরেরর প্রধান ফটকের বাইরের সড়কে অবস্থান নেন। তারা বিকালে মুরাদকে প্রতিরোধের ডাক দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে বিমানবন্দর থানার ওসি বি এম ফরমান আলীর কাছে জানতে চাইলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে পুলিশ বলেছে, কিছু মানুষ প্ল্যাকার্ড নিয়ে বিক্ষোভ করলেও ১১টার দিকে চলে য়ায়। বিকালে আবার একই কর্মসূচি পালন করার কথা বলেছে তারা।

রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম না রাখা, সংবিধানে বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম না রাখা, প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান, তার সহধর্মিনী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া, তারেক রহমান ও তার মেয়ে জাইমা রহমান সম্পর্কে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে আলোচনায় আসেন ডা. মুরাদ। এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও এর নারী শিক্ষার্থীদের সম্পর্কে ন্যাক্কারজনক মন্তব্য করেন তিনি।

এরই এক পর্যায়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি অডিও ভাইরাল হয়। যেখানে নায়িকা মাহির সঙ্গে অত্যন্ত অশ্লীল ভাষায় কথা বলেন সরকারের এই তৎকালীন প্রতিমন্ত্রী। এসব ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পদত্যাগ করেন তিনি, আওয়ামী লীগের সকল পদ থেকেও তাকে বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়েছে।

সর্বশেষ খবরঃ

আপনার জন্য আরো খবর

উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে