আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

প্রচন্ড শীতে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেড়েছে ঠান্ডাজনিত রোগীর সংখ্যাঃ

আব্দুল লতিফ সরকার,আদিতমারী প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের পাটগ্রামে সকাল থেকে বিকেল পযন্ত  দেখা মিলছে না সূর্যের আলোর , কুয়াশায় চারপাশ ঢাকা পুরো পাটগ্রাম শহর। শীতে জবুথবু প্রাণপ্রকৃতি, দেশের উত্তরাঞ্চলে এই লালমনিরহাট জেলার পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে হিমালয়া  পাহাড় থাকার কারণে  উত্তর অঞ্চলে এই হারকাপানো শীতের এমন প্রকোপে পাটগ্রাম উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আশঙ্কাজনকহারে নিউমোনিয়ায় ও ঠান্ডাজনিত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। শীতের অতিরিক্ত তীব্রতা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নিউমোনিয়ায়, হাঁপানি জ্বর-সর্দি, ডায়রিয়া, শ্বাসকষ্টসহ ঠান্ডাজনিত বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা নিতে প্রতিদিনই পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভিড় করছেন রোগীরা । তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি শিশু ও বয়স্ক। শিশু ও ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি রোগী ধারণক্ষমতারও ৫-৬ গুণ বেশি। এর মধ্যে ডায়রিয়া ওয়ার্ডে প্রতিদিন গড়ে ৮০-৯০ জন রোগী ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছে। এবং তাদের অধিকাংশই শিশু ও অর্ধ বয়স্ক রোগী। বহিঃবিভাগে প্রতিদিন ৩০০-৪০০ জন চিকিৎসা নেওয়াদের মধ্যেও শীত ও ভাইরাসজনিত রোগী বেশি।

পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সারজমিনে গিয়ে দেখা যায় শিশু ওয়ার্ডে ঠান্ডা, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে অনেক শিশু চিকিৎসাসেবা নিচ্ছে এবং যারা বেশি গুরুতর ভাবে অসুস্থ তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পাটগ্রাম পৌর ৫ নং বানিয়াপাড়া গ্রাম থেকে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শিশু সন্তানকে নিয়ে চিকিৎসা নিতে আসা মোঃ সাগর ইসলাম বলেন, আমার মেয়ে ডায়রিয়া জনিত রোগ সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি  ১ দিন হলো। চিকিৎসা নিতে এসে সব ধরনের ওষুধ বাইরে থেকে কিনে আনতে হচ্ছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যদি কিছু ওষুধের ব্যবস্থা করে দিত তাহলে আমাদের গরীব মানুষদের উপকার হতো। তবে ডাক্তার নিয়মিত দেখাশোনা করছেন  চিকিৎসা ও পরামর্শ দিচ্ছেন। আমার মেয়ের মতো অনেকে ঠান্ডাজনিত রোগে এখানে আছেন। এখানকার চিকিৎসার মান মোটামুটি ভালো বলেও জানান তিনি।

পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. জহির উদ্দীন মো. বাবর বলেন, গত বাড়ের তুলনায় এবার অনেক বেশি শীত  হওয়ার কারণে প্রতিনিয়ত আমাদের স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ঠান্ডাজনিত রোগ সর্দি, কাশি, নিউমোনিয়া, ফুসফুস সংক্রমণ ও হাঁপানি এ রোগীগুলোকে আমরা প্রচুর পরিমাণে পাচ্ছি। এখন প্রতিদিন আমরা আউটডোরে ৩০০ থেকে ৪০০ রোগী সেবা দিচ্ছি এর মধ্যে ঠান্ডাজনিত রোগীর সংখ্যা ৩০ শতাংশ এবং বাকিগুলো অন্যান্য সমস্যা নিয়ে আসে। আমাদের ইমার্জেন্সিতে বয়স্ক যারা আসে তারা সাধারণত শ্বাসকষ্ট নিয়ে আসতেছে। শিশুরা ঠান্ডাজনিত নিমোনিয়াসহ বিভিন্ন রোগ নিয়ে আসতেছে। আমরা আমাদের সাধ্যমত চিকিৎসা দেওয়ার চেষ্টা প্রধান করছি। শীতে ঠাণ্ডা ও ভাইরাসজনিত রোগ থেকে শিশুর সুরক্ষায় অভিভাবকদের সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে লালমনিরহাট সিভিল সার্জন নির্মলেন্দু রায় জানান, গত কয়েক দিন থেকে জেলায় শীতের হার অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। ঘন কুয়াশা হওয়ায় বেশি শীত অনুভূত হচ্ছে ফলে হাসপাতালগুলোতে ঠান্ডাজনিত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। আমরা স্বাস্থ্য বিভাগ শিশু এবং বয়স্কদের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

নামাজের সময়সূচি: ২২ জুন ২০২৩

আজ বৃহস্পতিবার, ২২ জুন ২০২৩ ইংরেজি, ০৮ আষাঢ় ১৪৩০ বাংলা, ০৩ জিলহজ ১৪৪৪ হিজরি। ঢাকা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকার নামাজের সময়সূচি তুলে ধরা হলো- নামাজের

বেসিক ব্যাংক কি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক: গত দেড় দশকে ১১৬টি বড় অনিয়মের ঘটনা নিয়ে বাঁচার লড়াইয়ে বেসিক ব্যাংক। যেখানে বেশি ঋণ জালিয়াতি আর অনিয়ম রাজধানীর অভিজাত এলাকার বিভিন্ন শাখায়।

যুবলীগ নেতার চোখ উপড়ে ফেলল দুর্বৃত্তরা, অবস্থা আশঙ্কাজনক’

নিজস্ব প্রতিবেদক: লক্ষ্মীপুরে কামাল হোসেন নামে এক যুবলীগ নেতার চোখ উপড়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে চিকিৎসকরা। সোমবার (১৮ মার্চ’)

‘পিলখানা হত্যাকাণ্ডে শহিদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা’

নিজস্ব প্রতিবেদক: পিলখানা হত্যাকাণ্ডের ১৫ বছর পূর্ণ হলো আজ রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি’) নারকীয় এই হত্যাকাণ্ডে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী

২৬ হাজারের বেশি কর্মী নেবে জার্মানি, ফি ও আইইএলটিএস ছাড়াই আবেদনের সুযোগ

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: বড় ধরনের নিয়োগ দিচ্ছে জার্মানি। শিক্ষকতা, স্বাস্থ্যসেবা, কৃষি, নির্মাণ, প্রযুক্তিসহ নানা খাতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে দক্ষ কর্মী নেবে দেশটি। ইংরেজি

‘বিশ্বের সবচেয়ে ধনী গ্রাম’ 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গ্রামের কথা বললেই চোখে ভাসে, সবুজ শ্যামল মাঠ। পুকুর, গাছপালা আর পাখা পাখালির ডাক। গরুর গাড়ি। গোওয়াল ঘর। তাই না? আবার যদি বলি,