আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে সিএনজির ধাক্কায় বাঁশখালীতে বৃদ্ধের মৃত্যু

বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ বাঁশখালীতে সিএনজি চালিত অটোরিক্সার ধাক্কায় মুহাম্মদ ছালেহ আহমদ (৯০) নামের একজন বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। গত বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার মনছুরিয়া বাজারের উত্তরে দেলোয়ার কমিশনার ঘাটায় বাঁশখালী প্রধান সড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিৎ করেন তার নাতি নুরুল ইসলাম।এ ঘটনায় নিহত মো. ছালেহ আহমদ বাঁশখালী পৌরসভার দক্ষিণ জলদি ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাতঘর পাড়া এলাকার মৃত মতিউর রহমানের পুত্র।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ‘ছালেহ আহমদ স্থানীয় বায়তুল আমান জামে মসজিদে মাগরিবের নামাজ শেষ করে বাড়ি ফেরার পথে প্রধানসড়ক পার হতেই সড়কের উত্তর দিক থেকে আসা সিএনজির ধাক্কায় মাথায় ও বুকে গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয়। ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থা আশংকাজনক দেখে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

নিহতের নাতি নুরুল ইসলাম বলেন, ‘আমার দাদা চমেকে চিকিৎসাধিন অবস্থায় আজ সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ইন্তেকাল করেছেন

 

 

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

ইরানে আতশবাজি বিস্ফোরণে হতাহত’ ৯৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরানে আগুন উৎসবের আগে ঘরে ঘরে চলছে আতশবাজি ফোটানোর আয়োজন। গত ১০ দিনে ইরানে আতশবাজি বিস্ফোরণের ঘটনায় অন্তত পাঁচজন নিহত এবং ৯১ জন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে র‍্যাগিংয়ের নামে নবীন ছাত্রকে উলঙ্গ করে রাতভর নির্যাতন ছাত্রলীগের

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের এক নবীন শিক্ষার্থীকে রাতভর উলঙ্গ করে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ১২টা থেকে ভোররাত সাড়ে ৪টা

‘সৌদিতে এক সপ্তাহে প্রায় ১৯ হাজার প্রবাসী গ্রেপ্তার’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: শ্রম, আবাসিক ব্যবস্থার নিয়ম লঙ্ঘন ও সীমান্ত নিরাপত্তা আইন ভঙ্গের দায়ে গত এক সপ্তাহে ১৮ হাজার ৫৩৮ প্রবাসীকে গ্রেফতার করেছে সৌদি আরব কর্তৃপক্ষ।

‘বহুল আলোচিত রাম মন্দিরের উদ্বোধন আজ, আমন্ত্রিত ৭ হাজার অতিথি’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: রাম মন্দির উদ্বোধন অনুষ্ঠানকে ঘিরে ভারতের উত্তর প্রদেশের অযোধ্যাকে কড়া নিরাপত্তার চাঁদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে। যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঠেকাতে ড্রোন, স্নাইপার

ফের বাড়ছে বিদ্যুতের দাম’

নিজস্ব প্রতিবেদক: মূল্যস্ফীতিতে নাভিশ্বাস হয়ে পড়ছে জনজীবন। রীতিমত মানুষ দৈনন্দিন খরচের হিসাব মেলাতে পারছে না, এ অবস্থায় আবারও বাড়ছে বিদ্যুতের দাম। গ্রাহক শ্রেণি অনুযায়ী বিদ্যুতের

‘আপনি সেবক, দেশের মালিক না

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, ধানের শীষ আর পেটের বিষ ওটার আর খুব বেশি দরকার নেই। জামায়াত-ধানের শীষ বাদে বাকিদের সঙ্গে রাজনৈতিক আচরণ করুন। আপনার অনেক আচরণ রাজনৈতিক আচরণ হচ্ছে না। গত পাঁচ বছরে একটি রাজনৈতিক দলের সঙ্গেও বসেননি, কথা বলেননি। দেশ চালাবেন আর দেশে রাজনীতি হবে না, তাহলে দেশ চালাতে পারবেন না। আপনি দেশের মালিক না, দেশের সেবক। সেটা মনে রাখবেন।   সোমবার (৯ অক্টোবর) ময়মনসিংহ নগরীর টাউন হলের অ্যাডভোকেট তারেক স্মৃতি মিলনায়তনে বৃহত্তর ময়মনসিংহের প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।   বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেন, ভোটে কে এলো কে এলো না, ভোটে আমেরিকা-জার্মান-কানাডা-ইংল্যান্ড কী করল এগুলো বড় কথা নয়। দেশের শতকরা ৭০-৭৫ ভাগ ভোটার যদি ভোটকেন্দ্রে যায়, তারা যদি ভোট দিতে পারে তাহলে আমেরিকা যদি তার দেশ নিয়েও আমাদের ওপরে আসে তাহলে কিছু করতে পারবে না।   বঙ্গবীর বলেন, এজন্য বোন (শেখ হাসিনা) আপনাকে আমি অনুরোধ করি আপনি ভোট সুষ্ঠু করার চেষ্টা করবেন। মানুষ যেন ভোট দিতে যেতে পারে এ ব্যাপারে হেল্প করবেন। ভোটারদের ফেরাবেন না।   বঙ্গবীর আরও বলেন, জিয়া, এরশাদ ও খালেদা জিয়ার আমলে দুষ্কৃতকারী ছিলাম। আজকে আমার বোন শেখ হাসিনার আমলেও সরকারি খাতায় দুষ্কৃতকারী। আমি জানতে চাই এই দুষ্কৃতকারী কবে দূর হবে। বঙ্গবন্ধুর হত্যার প্রতিবাদ করে আমি অন্যায় করেছি না ন্যায় করেছি এই কথা শেখ হাসিনাকে বলতে হবে। বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদ করা যদি অন্যায় হয় সেটা বলেন, আমাদেরকে ফাঁসি দেন। সবার আগে আমাকে ফাঁসি দেন, তারপর আমার ভাই লতিফ সিদ্দিকীকে দেন।   ময়মনসিংহ জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ আবদুর রশিদের সভাপতিত্বে সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার, মঞ্জুরুল ইসলাম বিমল, জোবাইদুল ইসলাম বাবু, রিগ্যাম মামুন, আবু সুফিয়ান প্রমুখ।