আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

নকলের অভিযোগে পরীক্ষা দিতে বাধা, সুইসাইড নোটে যা লিখে গেল সাবিনা

জেমস আব্দুর রহিম রানা: যশোরের মনিরামপুরে পরীক্ষার হলে নকলের অভিযোগে বাড়ি ফিরে লজ্জায়-ক্ষোভে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে দ্বাদশ শ্রেণি পড়ুয়া এক কলেজছাত্রী। তার ঘর থেকে মৃত্যুর আগে খাতায় লিখে রাখা একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ শনিবার দুপুরে উপজেলার বাগডাঙ্গা গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। ওই ছাত্রীর নাম সাবিনা খাতুন (১৭)। সে বাগডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল জলিলের মেয়ে।

সাবিনা উপজেলার গোপালপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী ছিল। ইংরেজি দ্বিতীয়পত্রের মাধ্যমে আজ ওই কলেজে নির্বাচনী পরীক্ষা শুরু হয়েছে। সকালে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল সাবিনা।

বাগডাঙ্গা গ্রামের স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রউফ বলেন, ‘সকালে পরীক্ষা শুরু হওয়ার পর সাবিনার কাছ থেকে কাগজের টুকরা দেখে ফেলেন কক্ষের শিক্ষক। পরে দেড় ঘণ্টা তার খাতা আটকে রাখা হয়। সেই কারণে খাতায় আর লিখতে পারেনি সে।’

ইউপি সদস্য আরও বলেন, ‘কলেজ থেকে বাড়ি ফিরে একটি কাগজে সব ঘটনা লেখে সাবিনা। তারপর ঘরের দরজা লাগিয়ে আড়ার সাথে ওড়না জড়িয়ে গলায় ফাঁস দেয় সে। কিছুক্ষণ পর মেয়ের সাড়াশব্দ না পেয়ে ওর মা ঘরে গিয়ে এ দৃশ্য দেখে চিৎকার দেন। তখন আশপাশের লোকজন এসে সাবিনার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছেন।’

এ বিষয়ে গোপালপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ রেজাউল করিম বলেন, ‘ঘটনা জানার পর আমি শিক্ষক ও কমিটিকে নিয়ে জরুরি সভায় বসেছি। মেয়েটির কাছে পাওয়া সেই নকলের কাগজ ও তার পরীক্ষার খাতা আমার সামনে। ইংরেজি দ্বিতীয়পত্র দিয়ে আজকে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের নির্বাচনী পরীক্ষা শুরু হয়েছে। কলেজের শিক্ষক তাসলিমা খাতুন ও ইসমাইল হোসেন কক্ষের দায়িত্বে ছিলেন। আমি তাদের সঙ্গে কথা বলছি। পরে বিস্তারিত জানাতে পারব।’

মনিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী মাসুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে একটি চিরকুটও পেয়েছি। এই ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হবে। লাশ মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।’

ওই কলেজছাত্রীর খাতায় লেখা ছিল—‘আমার কিছু মনে থাকে না বলে পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার আগে আমি অল্প একটু কাগজে তথ্য লিখে পড়তে পড়তে কক্ষে যাই। পরীক্ষা শুরু হয়ে যাওয়ায় তা ফেলে দিতে মনে ছিল না। পরীক্ষার মধ্যে কলেজের সমাজ-বিজ্ঞানের শিক্ষক তা দেখে ফেলেন। তিনি খাতা নিয়ে দেড় ঘণ্টা আটকে রাখেন। আমি তার কাছে ভুল স্বীকার করেছি। তারপরও তাসলিমা ম্যাডাম ও ইসমাইল স্যার আমাকে পরীক্ষা দিতে দিল না। তাড়িয়ে দিলেন। আমি লজ্জায় মুখ দেখাতে না পেরে দুনিয়া ছেড়ে চলে যাচ্ছি। ভুলত্রুটি মাফ করে দিও। আমার কাছে ফারহানা ২৫ টাকা ও সুবর্ণা ৫ টাকা পাবে।তোমরা দিয়ে দিও।’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

চাপে পড়ে কলেজছাত্রীকে বিয়ে করলেন ওসি

নিজস্ব প্রতিবেদক: গাজীপুরের জয়দেবপুর থানার ওসি সৈয়দ মিজানুর ইসলাম এক কলেজছাত্রীকে নিয়ে একটি রিসোর্টে কয়েক দিন ধরে রাত্রিযাপন করে পরে চাপের মুখে তাকে বিয়ে করতে

মৌসুম পরিবর্তনে বাড়ে অসুস্থতা, জরুরি সতর্কতা’

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: ষড়ঋতুর দেশে বছরজুড়েই বদলাতে থাকে পরিবেশ, আবহাওয়া। কখনো তপ্ত রোদ, কখনো কুয়াশা, কখনো বৃষ্টি-বরষা। মৌসুমের পালা বদলে পরিবর্তন হয় শারিরীক-মানসিক পরিস্থিতি।

‘সরকারকে স্বীকৃতি দিল বিএনপি’

নিজস্ব প্রতিবেদক: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে টানা চতুর্থ মেয়াদে সরকার গঠন করেছে আওয়ামী লীগ। গত ১১ জানুয়ারি বঙ্গভবনে নতুন মন্ত্রিসভার শপথ গ্রহণ সম্পন্ন

আলমকে গুলি করে হত্যার হুমকি

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: আলোচিত কনটেন্ট ক্রিয়েটর আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলমকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি’) দিবাগত রাত

পুলিশি বাধায় বিদ্যুৎ ভবনে যেতে পারেনি বিএনপি

অসহনীয় লোডশেডিং এবং বিদ্যুৎ খাতে ব্যাপক দুর্নীতির প্রতিবাদে রাজধানীর মতিঝিলে বিদ্যুৎ ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করার কথা ছিল বিএনপির। কিন্তু পুলিশি বাধায় শেষ পর্যন্ত

বেলকুচিতে হরতালের প্রতিবাদে আ.লীগের শান্তি সমাবেশ

ভি কে জয়, বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে বিএনপি-জামায়াতের অবৈধ হরতালের নামে সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য, অগ্নি সংযোগের প্রতিবাদে শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশ করেছেন। রবিবার (২৯