আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

তীব্র শীত উপেক্ষা করে জমে উঠেছে যশোরের ঐতিহ্যবাহী মধুমেলা

জেমস আব্দুর রহিম রানা: তীব্র শীত উপেক্ষা করে জমে উঠেছে যশোরের ঐতিহ্যবাহী মধুমেলা। কেশবপুর উপজেলার সাগরদাঁড়ির কপোতাক্ষ নদ পাড়ে হাজারো দর্শনার্থীর পদচারণায় মুখর মধুমেলা। মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের বসতভিটা, কপোতাক্ষ নদের পাড়, বিদায় ঘাট, কবির স্মৃতি বিজড়িত বুড়ো কাঠবাদাম গাছতলা ও মধুমেলা প্রাঙ্গণ মানুষের মিলন মেলায় পরিণত হয়েছে। মাইকেল মধুসূদন দত্তের ২০০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গত ১৯ জানুয়ারি থেকে সাগরদাঁড়িতে শুরু হয়েছে নয় দিনব্যাপী এই মধুমেলা।

আজ বুধবার মেলার ষষ্ঠ দিন সকাল থেকে মেলার মাঠসহ কপোতাক্ষ নদ পাড়ে প্রচুর লোক সমাগম চোখে পড়ে। এবারের মধুমেলায় মধুমঞ্চে কেশবপুর ও যশোরের বিভিন্ন শিল্পীগোষ্ঠীসহ কবি, সাহিত্যিক ও শিল্পীদের আলোচনা, কবিতা, সংগীত পরিবেশনার পাশাপাশি প্যান্ডেলে সার্কাস, জাদু প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। আছে মোটরসাইকেল ও মাইক্রোবাসের রোমাঞ্চকর খেলা ‘মৃত্যুকূপ’।

শিশুদের বিনোদনের জন্য রয়েছে নাগরদোলাসহ নানা আয়োজন। মেলার মাঠে কুটির শিল্পসহ ছোট-বাড় প্রায় ৫ শ স্টল বিভিন্ন পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসেছে। হরেক রকমের পান, মটকা চা, ফুচকা-চটপটি, আচার ও মোয়া-মুড়ির দোকানগুলোতে রয়েছে দর্শনার্থীদের ভিড়। মেলার মাঠের এক পাশে রয়েছে আসবাবপত্রের দোকান।

কপোতাক্ষ নদ পাড়ের কবির স্মৃতি বিজড়িত কাঠবাদাম গাছ তলার পাশে বসানো হয়েছে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট নামে একটি চায়ের স্টল। ওই স্টলে কথা হয় ঢাকার বাসাবো থেকে আসা রোজিনা খাতুনের সঙ্গে। তিনি বলেন, তার কলেজপড়ুয়া ছেলে শাহেদ খান ও স্কুলপড়ুয়া ছেলে জায়েদ খানকে নিয়ে সাগরদাঁড়ি মধুমেলায় এসেছেন।

সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার মানিকহার গ্রাম থেকে এসেছেন মুজিবুর রহমান, তবিবুর রহমান, মহব্বত হোসেন। তাঁরা তিন বন্ধু। সারা দিন কপোতাক্ষ নদ পাড়, মেলার মাঠ ঘুরে বিকেলে মধুমঞ্চের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান তাদের মুগ্ধ করেছে। প্রতি বছরই মেলায় আসেন।

মুজিবুর রহমান জানান, মধুমেলা তাঁদের প্রাণের মেলায় পরিণত হয়েছে। কিন্তু কপোতাক্ষ নদের ওপর সেতু নির্মাণ না হওয়ায় মেলার সময় দর্শনার্থীদের যাওয়া আসায় ভোগান্তিতে পড়তে হয়।

মেলার মাঠে রয়েছে বাহারি ও মুখরোচক সব মিষ্টির দোকান। পরিতোষ নন্দীর দোকানে বিশাল আকারের একটি রাজভোগ মিষ্টি ৭০০ টাকা এবং একটি বালিশ মিষ্টি ৩০০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে। দোকানের কর্মচারী শিমুল ঘোষ জানান, দর্শনার্থীরা মিষ্টি কেনার থেকে দেখতে আসছে বেশি।

সাতক্ষীরা থেকে আসা আসিফ হোসেন বলেন, পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মধুমেলায় এসেছি। মেলা থেকে ছেলে-মেয়েদের জন্য বিভিন্ন খেলনা কেনা হয়েছে। মধুমেলায় এসে কবির বসতভিটা, কপোতাক্ষ নদ পার, বিদায় ঘাট, কবির স্মৃতি বিজড়িত বুড়ো কাঠবাদাম গাছতলা ও মধুমেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে খুবই ভালো লেগেছে।

বাগেরহাট শহর থেকে মেলা দেখতে আসা রায়হান হোসেন বলেন, মধুমেলার কথা অনেক শুনেছি, কিন্তু কখনো আসা হয়নি। এবারই প্রথম এসেছি। মেলার মাঠ ও কপোতাক্ষ নদ পার ঘুরে বিভিন্ন প্যান্ডেলের অনুষ্ঠান দেখে মুগ্ধ হয়েছি।

মধুমেলার মাঠ ঘুরে বিভিন্ন স্টল গুলোতে নারী দর্শনার্থীদের সাংসারিক মালামালসহ ছেলেমেয়েদের জন্য বিভিন্ন খেলার সামগ্রী কিনতে দেখা যায়।

কেশবপুরের পাঁজিয়া গ্রাম থেকে পরিবার নিয়ে এসেছেন আব্দুর রহমান নামে এক কৃষক। তিনি জানান, এবারের মেলায় কৃষিবিষয়ক স্টল না থাকায় কিছুটা হলেও মেলার আকর্ষণ কম হয়েছে। তবে এখানকার চমৎকার পরিবেশ তাঁদের ভালো লেগেছে।

সাগরদাঁড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য সুভাষ দেবনাথ বলেন, মধুমেলা উপলক্ষে সাগরদাঁড়িসহ চারপাশের গ্রামগুলোতে শুরু হয়েছে আত্মীয়-স্বজনদের আতিথেয়তা। মধুকবির ২০০তম জন্মবার্ষিকীতে মেলা সাত দিন দিন থেকে বাড়িয়ে নয় দিন করায় মানুষের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা গেছে।

কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তুহিন হোসেন বলেন, মেলায় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে দর্শনার্থীরা আসছেন। সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে এ মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। যশোর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে নয় দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত এ মধুমেলা আগামী ২৭ জানুয়ারি শেষ হবে।

উল্লেখ্য, ১৮২৪ সালের ২৫ জানুয়ারি যশোরের কেশবপুর উপজেলার কপোতাক্ষ নদের তীরে সাগরদাঁড়ি গ্রামের বিখ্যাত দত্ত পরিবারে জন্ম নেন মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্ত ।

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

অন্তরঙ্গ মুহূর্তে বৈদ্যুতিক শক দিয়ে স্বামীকে খুন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: অন্তরঙ্গ মুহূর্তে স্বামীকে ইলেকট্রিক শক দিয়ে খুন করেছেন স্ত্রী। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের বরাতে জানা যায়, নদীয়ার করিমপুরের রামনগর এলাকায় স্বামীর জমানো ২৫ লাখ

উপজেলা নির্বাচন হবে উৎসবমুখর, নিরপেক্ষ, প্রভাবমুক্ত অতি সুন্দর নির্বাচন: ইসি রাশেদা

তানজিলা আক্তার রাজশাহী, প্রতিনিধি: রাজশাহী, ০৪ মে ২০২৪ নির্বাচন কমিশনার রাশেদা সুলতানা বলেছেন, এবারের নির্বাচন হবে উৎসবমুখর, নিরপেক্ষ, একেবারেই প্রভাবমুক্ত সব কিছুর বাইরে অতি সুন্দর

বুয়েটে ছাত্র রাজনীতিতে বাধা নেই: হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) ছাত্র রাজনীতি চলতে বাধা নেই বলে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সোমবার (১ এপ্রিল’) বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি কে এম

নারী নেত্রীর আপত্তিকর ভিডিও ছড়িয়ে দিয়েছেন অপর নেত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: ময়মনসিংহে নারী নেত্রীর বিরুদ্ধে জিম্মি করে আপত্তিকর ভিডিওধারণ, মারধর ও পরে ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন আরেক নারী নেত্রী। সোমবার (৬ মে’) দুপুরে

সুপ্রিম কোর্টের ৫ আইনজীবী রিমান্ডে’

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে ভোট গণনাকে কেন্দ্র করে হট্টগোল, হাতাহাতি ও মারামারির ঘটনায় দায়ের করা হত্যাচেষ্টা মামলায় ৫ আইনজীবীকে জিজ্ঞাসাবাদের

রাইসির মৃত্যু ঘিরে রহস্যময় ৪ প্রশ্ন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সম্প্রতি হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত ইরানি প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসিসহ বাকি সবার তৃতীয় জানাজা গতকাল ইরানের রাজধানী তেহরানের ইউনিভার্সিটি অব তেহরান ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই