আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

‘চাহিদা অনুযায়ী টাকা দিতে না পারায় ৩২ বছর বেতন পান না অহিদুল

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রধান শিক্ষক ও পরিচালনা কমিটির চাহিদা অনুযায়ী অর্থ দিতে না পারায় এমপিও শিটে নাম ওঠেনি রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার চম্পাতলী উচ্চবিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিষয়ে শিক্ষক অহিদুল ইসলাম। প্রায় ৩২ বছর ধরে চাকরি করলেও বেতন পাননি তিনি। এ অবস্থায় আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছেন এই শিক্ষক।

জানা গেছে, ১৯৯২ সালের ২৪ জানুয়ারি চম্পাতলী উচ্চবিদ্যালয়ে শিক্ষক পদে নিয়োগপত্র পান। সেদিনই যোগদান করেন তিনি। যোগদানের সময় বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে এক লাখ টাকাও দেন অহিদুল। ২০০৪ সালে নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয়টি এমপিওভুক্ত হয়। বিদ্যালয়ের এমপিওভুক্তির ২০ বছর হতে চললেও এমপিওভুক্ত হতে পারেননি অহিদুল।’

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চম্পাতলী উচ্চবিদ্যালয় এমপিওভুক্ত হওয়ার পর অহিদুলকে বাদ দিয়ে বিদ্যালয়ের সভাপতি আব্দুর রহমানের ভাই আতাউর রহমানকে নিয়োগ দিয়ে এমপিওভুক্ত করা হয়। এরপর অহিদুলকে অফিস সহকারীর শূন্য পদে নিয়োগ দেওয়ার কথা বলে তৎকালীন প্রধান শিক্ষক সহিদার আরও ৩০ হাজার টাকা নেন। তাতেও প্রতারিত হওয়ার পর ২০০৫ সালে সহকারী শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। পরবর্তীতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেন অহিদুল।

পরবর্তীতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এস এম শহীদুল ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার নেতৃত্বেও একটি কমিটি করা হয়। উভয় কমিটি অহিদুল ইসলামকে এমপিও শিটে নাম অন্তর্ভুক্তির জন্য সুপারিশ করে। সেই সুপারিশের চার মাস পার হলেও গত শনিবার পর্যন্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক সরকার অহিদুলের বেতন-ভাতার জন্য (এমপিও) কাগজপত্র উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কার্যালয়ে পাঠাননি।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী অহিদুল ইসলাম বলেন, ‘এমপিও শিটে নাম তুলতে প্রধান শিক্ষক যত টাকা দাবি করছেন, তা আমার পক্ষে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। কারণ, আমার সেই অর্থ নেই। তবু আমি ২০০৪ সালের আগে ১ লাখ ২০ হাজার এবং গত বছর ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দিয়েছি। এরপরও আমার নাম এমপিও শিটে ওঠেনি।

প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘ম্যানেজিং কমিটির মেয়াদ তিন মাস আগে শেষ হয়েছে, তাই কমিটি ছাড়া তাঁর কাগজপত্র অনলাইনে পাঠাতে পারছি না।’

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এস এম শহীদুল ইসলাম বলেন, ওই শিক্ষকের কাগজপত্রে কোনো ত্রুটি নেই। এমপিওর জন্য ওই শিক্ষকের কাগজপত্র প্রধান শিক্ষককে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছি। কিন্তু রহস্যজনক কারণে তাঁর কাগজপত্র পাঠাচ্ছেন না প্রধান শিক্ষক।’

রংপুরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোবাশ্বের হাসান বলেন, ‘ওই শিক্ষকের অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি দ্রুত দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

এক মামলায় ঝুলে থাকলো মির্জা ফখরুলের জামিন’

নিজস্ব প্রতিবেদক: ১০ মামলায় জামিনে পেলেও প্রধান বিচারপতির বাসভবনের সামনে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় হওয়ায় মামলায় জামিন পাননি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বৃহস্পতিবার

প্রথমবার বিপিএলের চ্যাম্পিয়ন ফরচুন বরিশাল’

নিজস্ব প্রতিবেদক: অবশেষে সকল জল্পনা-কল্পনা শেষে বিপিএলের দশম আসরের গ্র্যান্ড ফাইনালে চারবারের শিরোপাজয়ী কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ফরচুন বরিশাল। শুক্রবার (১ মার্চ) মিরপুর শেরে

পোশাক রপ্তানি নিয়ে মার্কিন শুনানিতে প্রশ্নের মুখে বাংলাদেশ’

বাংলা পোর্টাল: তৈরি পোশাক যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে রপ্তানি করে এমন ৫ দেশের বিষয়ে শুনানি সোমবার ভার্চ্যুয়ালি আয়োজন করেছিল যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি সংস্থা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য কমিশন (ইউএসআইটিসি) যার

পাকিস্তানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২০, আহত ২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পাকিস্তানের কারাকোরাম হাইওয়েতে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২১ জন। শুক্রবার ভোরে উচ্চগতির একটি যাত্রীবাহী

শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব’

নিজস্ব প্রতিবেদক: মুসলিম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জমায়েত বিশ্ব ইজতেমা টঙ্গীর তুরাগ তীরে আমবয়ানের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে। শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারি ফজর নামাজের পর পাকিস্তানের

সিরাজগঞ্জে শিক্ষক রায়হানের কাছে থেকে ২টি পিস্তলসহ বিপুল পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজে শিক্ষকের গুলিতে ছাত্র আহত হওয়ার প্রতিবাদে ও অভিযুক্ত শিক্ষক ডা. রায়হান শরীফের অপসারণের দাবিতে মঙ্গলবার (৫মার্চ)