আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

‘চট্রগ্রামে দেখা দিয়েছে তীব্র পানি সংকট’

নিজস্ব প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম মহানগরীতে সুপেয় পানির তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। মানুষ খাচ্ছে লবণ পানি। কারণ কাপ্তাই হ্রদ থেকে পানি ছাড়ার মাধ্যমে বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়। সেই পানি গিয়ে মেশে কর্ণফুলী ও হালদা নদীতে। ফলে সাগরের পানি উজানের দিকে যেতে না পারায় লবণাক্ততা থেকে রক্ষা পায় দুই নদীর পানি। আর এই পানি পরিশোধন করে নগরবাসীর মধ্যে সরবরাহ করে চট্টগ্রাম ওয়াসা।

কিন্তু কাপ্তাই হ্রদে কমে গেছে পানির পরিমাণ। ফলে সেভাবে ছাড়া হচ্ছে না পানি। নেই তেমন বৃষ্টিপাতও। এতে সাগরের পানি উজানে উঠে আসায় লবণাক্ত হয়ে পড়েছে নদীর পানি। যার ফলে ওয়াসা যে পানি সরবরাহ করছে সে পানিতে লবণাক্ততা থেকেই যাচ্ছে’।

এমনিতেই সংকটের কারণে কয়েক মাস ধরে নগরের বিভিন্ন এলাকায় পর্যাপ্ত পানি সরবরাহ করতে পারছে না চট্টগ্রাম ওয়াসা। এর মধ্যে এখন সরবরাহ করা হচ্ছে লবণাক্ত পানি। যেসব পানি ব্যবহার করতে না পেরে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে নগরবাসী।

অতিরিক্ত লবণ পানি পানের ফলে মানুষের শরীরে দেখা গেছে উচ্চ রক্তচাপসহ নানা সমস্যা। এছাড়া যাদের কিডনি রোগের উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। এছাড়া লবণ পানি পানের ফলে দ্রুত কিডনি নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা করছেন চিকিৎসকরা।

জানা গেছে, গত ফেব্রুয়ারির শুরু থেকে কমতে থাকে কাপ্তাই হ্রদের পানি। মার্চে তা আরো কমে যায়। রুলকার্ভ অনুযায়ী, এ সময় কাপ্তাই হ্রদে ৮৫ মিটার এমএসএল (মিন সি লেভেল’) পানি থাকার কথা থাকলেও সেটি কমে চলে এসেছে ৭৭ মিটার এমএসএল-এ।

কাপ্তাই জলবিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ জানায়, পর্যাপ্ত পানির অভাবে কাপ্তাই জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাঁচটি ইউনিটের মধ্যে চারটিই বর্তমানে বন্ধ। ২৩০ মেগাওয়াটের পাঁচটি ইউনিটের ৫০ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতার একটি ইউনিট চালু থাকলেও তা থেকে পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ৩০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ। কেবল বৃষ্টি হলেই এ সমস্যার সমাধান হবে বলে মনে করছেন তারা।

কাপ্তাইয়ের কর্ণফুলী জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ব্যবস্থাপক এটিএম আব্দুজ্জাহের বলেন, পানির লেভেল ৬৮ এমএসএল-এ নেমে গেলে পানি ছাড়া এবং বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়। পানি যেভাবে কমে যাচ্ছে, তাতে বাকি এক ইউনিটের বিদ্যুৎ উৎপাদনও বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এমনটি হলে নদীতে লবণাক্ততার মাত্রা আরো বৃদ্ধি পাবে।

ওয়াসা সূত্র জানায়, জোয়ারের সময় সাগরের পানি ঢুকে পড়ার ফলে ৪ থেকে ৫ ঘণ্টা বন্ধ রাখতে হয় ওয়াসার পানি উৎপাদন। এতে করে উৎপাদন কমে যায়। বিভিন্ন শোধনাগার ও গভীর নলকূপ থেকে ওয়াসার পানির উৎপাদন ক্ষমতা প্রায় ৫০ কোটি লিটার। কিন্তু বর্তমানে ৪০ কোটি লিটারের বেশি পানি উৎপাদন করা যাচ্ছে না । ফলে নগরের অনেক এলাকায় লেগে আছে পানির সংকট। দুর্ভোগ পোহাচ্ছে সেসব এলাকার মানুষ। এ অবস্থায় পরিস্থিতি সামাল দিতে বিভিন্ন এলাকায় রেশনিং করা হচ্ছে।

চট্টগ্রাম ওয়াসার তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম বলেন, কাপ্তাই হ্রদের পানি কমে যাওয়ায় পর্যাপ্ত পানি ছাড়া হচ্ছে না। ফলে সাগরের পানি উঠে আসছে উজানে। তবে বৃষ্টিপাত হলে এবং হ্রদে পানি বাড়লে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

লবণাক্ত পানির ব্যাপারে কর্মকর্তারা বলছেন, রিভার্স অসমোসিস প্রক্রিয়ায় পানি লবণমুক্ত করা যায়। যা খুব ব্যয়বহুল প্রক্রিয়া। প্রতি লিটার পানি রিভার্স অসমোসিস করতে খরচ পড়ে ৮০ থেকে ৯০ টাকা। সেদিকে না গিয়ে গভীর নলকূপ থেকে পাওয়া পানি কর্ণফুলীর পানির সঙ্গে ‘ব্লেন্ড’ করে লবণের মাত্রা কিছুটা সহনীয় পর্যায়ে রেখে সরবরাহ করা হচ্ছে’।

এদিকে, ওয়াসার কর্মকর্তাদের ব্যর্থতার কারণে নগরবাসীকে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম নাগরিক উদ্যোগের প্রধান উপদেষ্টা ও সিটি কর্পোরেশনের সাবেক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন।

তিনি বলেন, প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী পানি সরবরাহ করতে পারছে না ওয়াসা। যে পানি সরবরাহ করছে, তাও লবণাক্ত। প্রধানমন্ত্রীর আগ্রহে বড় বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে। ফলে পানির সংকট থাকার কথা নয়।

অতিরিক্ত লবণ পানি পান প্রসঙ্গে চট্টগ্রামের বেসরকারি ন্যাশনাল হাসপাতালের পরিচালক ডা. আমজাদ হোসেন বলেন, অতিরিক্ত লবণ পানি মানুষের উচ্চ রক্তচাপ সৃষ্টির পাশাপাশি কিডনি নষ্ট করে দেয়। যেসব মানুষের কিডনি রোগের উপসর্গ রয়েছে, তারা যদি এ ধরনের পানি পান করেন, তাদের দ্রুত কিডনি নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

শুধু তাই নয়, ডাঃ শামসুল ইসলাম খাঁন বলেন, লবণাক্ত পানি অব্যাহত ভাবে পান করলে রক্তনালি অকেজো হয়ে যেতে পারে। ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য লবণাক্ত পানি সাংঘাতিক ক্ষতিকর।’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

ইটের নিচে চাপা পড়ে প্রাণ গেল বৃদ্ধ দম্পতির 

নিজস্ব প্রতিবেদক: সারাদেশে প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমালের তাণ্ডবে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এরইমধ্যে নরসিংদী সদরের চরাঞ্চলে এক ব্যবসায়ীর স্তুপ করে রাখা ইট ঘরের উপর ধ্বসে পড়ে। এতে ইটের

চীনের গ্রেট হলে প্রধানমন্ত্রীকে রাষ্ট্রীয় অভ্যর্থনা

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: বেইজিংয়ের ‘গ্রেট হল অব দ্য পিপল’-এ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে রাষ্ট্রীয়ভাবে অভ্যর্থনা জানানো হয়েছে। এখানে তাকে লাল গালিচা সংবর্ধনা ও গার্ড অব

‘ভারতের সাহায্য পেলেন না ড.ইউনূস’

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিজের মামলা, দুর্নীতির অভিযোগ থেকে বাঁচার জন্য ভারতের সাহায্য চেয়েছিলেন ড. ইউনূস। ভারতে ড. ইউনূসের বিভিন্ন কার্যক্রম রয়েছে। বিশেষ করে মাইক্রোক্রেডিটের বিভিন্ন কার্যক্রম

এনায়েতপুরে প্রকাশ্যে রমরমা জুয়া ও মাদকের আসর, প্রশাসন নিরব 

জহুরুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানার জালালপুরে প্রকাশ্যে চলছে লাখ লাখ টাকার জুয়া খেলা। বিভিন্ন অঞ্চল থেকে বহু জুয়ারি এসে কর্তাদের ম্যানেজ করেই এ

ব্যবহারিকে নম্বর দেওয়ার নামে নেন টাকা ও ক্লাসে বসে পড়ান প্রাইভেট!

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি। ব্যবহারিকে নম্বর দেওয়ার নামে নেন টাকা, ক্লাসে বসে প্রাইভেট পড়ানোর অভিযোগ উঠেছে সিরাজগঞ্জের সরকারি আকবর আলী কলেজের গণিত বিভাগের শিক্ষক জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে।

৫ ছেলের ঘরে ঠাঁই হয়নি। কবরস্থানের পাশে বৃদ্ধ বাবা-মাকে ফেলে রেখে গেছে সন্তানেরা

সেলিম রেজা সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: কবরস্থানের পাশে বসে বাকরুদ্ধ বৃদ্ধ দম্পত্তি। এক সময় তাদের চোখে মুখে স্বপ্ন ছিল সন্তানেরা বড় হবে। এজন্য জীবনের পুরোটা সময় হাড়ভাঙ্গা