আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

গোয়েন্দা নজরদারিতে বাজারের সিন্ডিকেটের হোতারা’

নিজস্ব প্রতিবেদক: টানা চতুর্থ মেয়াদে দায়িত্ব গ্রহণ করে আওয়ামী লীগ সরকার তার প্রধান অগ্রাধিকার হিসাবে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণকে চিহ্নিত করেছে। দায়িত্ব গ্রহণের পরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ ব্যাপারে সুস্পষ্ট অনুশাসন দিয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, অর্থ মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের জন্য সমন্বিতভাবে কাজ করার চেষ্টা করছে। এ ব্যাপারে সরকার ত্রিমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

প্রথমত, বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য; বিশেষ করে রমজানের যে সমস্ত দ্রব্যের চাহিদা বাড়ে, সেই সমস্ত দ্রব্যগুলির উপর শুল্ক কমানোর নির্দেশনা দিয়েছে। ইতোমধ্যে এনবিআরকে এ ব্যাপারে চিঠি দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। শুল্ক হার কমানো হলে এই সমস্ত দ্রব্যের দাম কমবে বলে সরকার আশা প্রকাশ করছে।

দ্বিতীয়ত, জনসচেতনতা তৈরি করার চেষ্টা করছে সরকার। যারা বাজারে বিক্রেতা, পাইকারি থেকে শুরু করে আড়তদার সবার সঙ্গেই কথা বলছে এবং সবাইকে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের জন্য এক ধরনের দায়িত্বশীল আচরণ করার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছে। পাশাপাশি সরকার আইনের কঠোর প্রয়োগ করেছে। বিশেষ করে যারা পণ্যের বাজারে সিন্ডিকেট করে জিনিসপত্রের দাম বাড়াচ্ছে, তাদের ব্যাপারে কঠোর আইনগত অবস্থান গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

ইতোমধ্যে চালের বাজারে যে সমস্ত আড়তদার এবং মিল মালিকরা সিন্ডিকেট করে কৃত্রিমভাবে দাম বাড়িয়েছে, তাদেরকে চিহ্নিত করা হয়েছে। খাদ্যমন্ত্রী ইতোমধ্যেই ঘোষণা করেছেন যে, এদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।

অন্যদিকে, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের বাজারে যারা অযাচিতভাবে জিনিসপত্রের দাম বাড়াচ্ছেন এবং সিন্ডিকেট করে মুনাফা তৈরি করছেন তাদের চক্রকে চিহ্নিত করা হয়েছে। একাধিক সরকারি দায়িত্বশীল সূত্র বলছে, এই সিন্ডিকেটের হোতারা এখন গোয়েন্দা নজরদারিতে। এদের মধ্যে চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জের কয়েকজন চিহ্নিত ব্যবসায়ী রয়েছে। এছাড়াও ঢাকার কয়েকজন ব্যবসায়ীর রয়েছে।

বাংলাদেশের করপোরেট খাতে পরিচিত অন্তত দুই জন ব্যবসায়ী এই সিন্ডিকেটের অন্যতম হোতা বলেও বিভিন্ন সূত্র জানিয়েছে। এদের প্রত্যেককে গোয়েন্দা নজরদারিতে রাখা হয়েছে। গোয়েন্দা সংস্থাগুলো এরা কী পরিমাণ মজুদ করেছে এবং বাজারকে কীভাবে নিয়ন্ত্রণ করছে, সে সম্পর্কে আরও গভীরভাবে তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করছে। খুব শীঘ্রই এই সমস্ত সিন্ডিকেটের তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।’

একাধিক সূত্র বলছে, এরা ইতোমধ্যে গোয়েন্দা জালে আটকে পড়ে গেছেন। তবে সরকার মনে করে যে, আইন প্রয়োগ দ্রদ্ধমূল নিয়ন্ত্রণের একমাত্র সমাধান নয় বরং জনগণকে সচেতন করা, যারা বিক্রেতা আছেন তাদের মধ্যে এক ধরনের দেশপ্রেম এবং দায়িত্ববোধ তৈরি করা এবং বাজারে সরবরাহ ব্যবস্থাকে সহনীয় করার মধ্য দিয়েই দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। তবে সরকারের দায়িত্বশীল মহল স্বীকার করছেন, পণ্যের বাজারে একধরণের অস্থিতিশীলতা চলছে। দ্রব্যমূল্য পরিস্থিতি সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে এবং আসন্ন রমজানে কারসাজি করে যেন পণ্যের দাম না বাড়ানো হয় সরকার আগে থেকেই সচেতন। কারণ, এমনিতেই সবকিছুর বাড়তি দাম। এর মধ্যে যদি রমজানে আরও বাড়ানো হয়, তাহলে তা নিয়ে এক ধরণের জনঅসন্তোষ তৈরি হতে পারে। সরকার এই ধরণের পরিস্থিতি মোকাবিলা জন্য এখন থেকেই প্রস্তুত। এটি মোকাবিলার জন্য প্রয়োজনে সরকার কঠোর অবস্থানে যেতে পারে বলেও সুস্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছে। এখন দেখার বিষয়, যে সমস্ত সিন্ডিকেটের হোতারা গোয়েন্দা নজরদারিতে আছেন তাদের বিরুদ্ধে সরকার কি ব্যবস্থা নেয়’?

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

রামগড় ৪৩ বিজিবির অভিযানে অর্ধলক্ষাধীক টাকার ভারতীয় মদ জব্দ

মোঃ মাসুদ রানা, রামগড় (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধিঃ খাগড়াছড়ির রামগড় ৪৩ বিজিবির অভিযানে চট্রগ্রাম জেলার জোরারগন্জ থানার রহমতপুর নামক স্থান হতে ভারতীয় মদ জব্দ করা হয়। মঙ্গলবার

ব্র্যাকের শিক্ষক আসিফের চাকরিচ্যুতির ঘটনায় জাতীয় শিক্ষক ফোরামের ক্ষোভ

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: সপ্তম শ্রেণির পাঠ্যবইয়ে ট্রান্সজেন্ডার গল্প ‘শরীফ থেকে শরীফা’ সমালোচনা ও জনসম্মুখে বইয়ের পাতা ছিঁড়ে ফেলার জেরে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের খণ্ডকালীন

‘বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যাংক জালিয়াতির দায়ে ভিয়েতনামের ধনকুবেরের মৃত্যুদণ্ড’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভিয়েতনামের এক শীর্ষস্থানীয় ধনী ব্যবসায়ী ৪৪ বিলিয়ন ডলার আত্মসাতের মামলায় মৃত্যুদণ্ডর মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যাংক জালিয়াতির ঘটনা এটি। বৃহস্পতিবার (১১

বেলকুচিতে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ দু’টি হিন্দু পরিবারের পাশে জামায়াত নেতৃবৃন্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিরাজগঞ্জ বেলকুচি পৌরসভা’র চন্দনগাঁতী দক্ষিণ পাড়া ও মহল্লার শ্রী মনোরঞ্জন দেব এবং শ্রী সুশান্ত দেবের বসত-বাড়ীঘড় ভয়াবহ এক অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে।

এবার কোপায় আলবিসেলেস্তেদের স্কোয়াড যেমন হবে

ঠিকানা টিভি ডট প্রেস: চলতি বছরের জুনেই মাঠে গড়াবে লাতিন ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ের শীর্ষ টুর্নামেন্ট কোপা আমেরিকা। যার জন্য ইতোমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে অংশগ্রহণকারী

গবেষণা ছাড়া কোনো কিছুতেই উৎকর্ষ লাভ করা যায় না: প্রধানমন্ত্রী’

নিজস্ব প্রতিবেদক: গবেষণা ছাড়া কোনো কিছুতেই উৎকর্ষ লাভ করা যায় না বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার (১১ মার্চ’) শাপলা হলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি