আপনার জানার ও বিনোদনের ঠিকানা

গোপনে উইঘুরদের পক্ষে কাজ করছে তুরস্ক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বিশ্বব্যাপী পদ্ধতিগত নির্যাতন ও দমনপীড়নের জন্য বেশ কুখ্যাত পরাশক্তি চীন। বিশেষ করে দেশটির পূর্ব তুর্কিস্তান তথা জিনজিয়াং প্রদেশে বসবাসরত উইঘুর মুসলিমদের ওপর চীনা দমনপীড়নের বিরুদ্ধে সোচ্চার সারা বিশ্ব। যদিও তাতে বিন্দুমাত্র ভ্রুক্ষেপ নেই বেইজিংয়ের। এমনকি নিজ নিজ অর্থনৈতিক সুবিধার স্বার্থে এ বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ অধিকাংশ মুসলিম দেশ। তবে একই ভাষা ও জাতিগোষ্ঠী হওয়ার সুবাদে উইঘুর মুসলিমদের অধিকার নিয়ে বেশকিছু পদক্ষেপ নিয়েছে তুরস্ক। বলা হচ্ছে প্রকাশ্যে না হলেও কূটনৈতিকভাবে উইঘুরদের স্বার্থ রক্ষায় নিজেদের চেষ্টা জারি রেখেছে আঙ্কারা।’

মিডল ইস্ট আইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে চীন সফরে যান তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাকান ফিদান। এ সময় তুর্কি ভাষাভাষী উইঘুরদের অধিকার ও সংস্কৃতি রক্ষার জন্য গোপনে কূটনৈতিক প্রচেষ্টাও চালান তিনি। দুজন তুর্কি কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এমন তথ্য জানায় সংবাদমাধ্যমটি।

বেইজিং সফরকালে হাকান ফিদান চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট হ্যাং ঝ্যাং-এর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। সফরকালে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিনজিয়াংয়ের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলটিও ভ্রমণ করেন। ২০১২ সালের পর এটিকে উইঘুর অঞ্চলে সবচেয়ে গুরুত্বপর্ণ সফল বলে মনে করা হচ্ছে।

জিনজিয়াং সফরকালে ফিদান উরুমকি, কাশগার এবং উইঘুর নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। এ সময় ফিদান একটি ফিরোজা রঙের টাই পরেছিলেন, যা উইঘুর জাতীয় পতাকার সঙ্গে সম্পর্কিত। সফরে পূর্ব তুর্কিস্তানের শহরগুলোকে প্রাচীন তুর্কি-ইসলামিক শহর হিসেবে উল্লেখ করেন ফিদান, যা চীনকে তুর্কি ও ইসলামিক বিশ্বের সঙ্গে সংযুক্ত করে। তবে এ সময় উইঘুর সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে চীনের দমনপীড়ন ও পুনঃশিক্ষা ক্যাম্পে বিপুল পরিমাণ উইঘুর নারী-পুরুষকে আটক রাখার ব্যাপারে একেবারেই নিশ্চুপ ছিলেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তুরস্কের দুটি কূটনৈতিক সূত্র জানায়, আঙ্কারা বেইজিংয়ের কাছে উইঘুর ইস্যুটি গুরুত্বের সঙ্গে দেখার জন্য জোর দিয়েছে। এ সময় তুর্কি কর্মকর্তারা চীনা কর্মকর্তাদের জানান, উইঘুর তুর্কিদের সাংস্কৃতিক অধিকার এবং মূল্যবোধ রক্ষার বিষয়টি তুর্কি বিশ্ব এবং ইসলামিক বিশ্বের সংবেদনশীলতার সঙ্গে সম্পর্কিত। সূত্রগুলো জানায়, আঙ্কারা চীনের ‘এক চীন’ নীতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল। একইসঙ্গে উইঘুরদের অধিকার রক্ষার প্রতিও গুরুত্ব দেয়।

তুর্কি কর্মকর্তারা বেইজিংকে জানায়, উইঘুরদের সম্পর্কে তুরস্ক ও ইসলামি বিশ্বের উদ্বেগ দূর করা সকলের জন্যই মঙ্গলজনক হবে। এ ব্যাপারে একমাত্র চীনই কার্যকর পদক্ষেপ নিতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তুর্কি কূটনীতিকরা। অবশ্য ফিদানের এমন কার্যক্রমে বেশ অস্বস্তিতে পড়েছেন চীনা কর্তৃপক্ষ। জিনজিয়াংয়ের শহরগুলোকে তুর্কি ও ইসলামিক শহর বলে উল্লেখ করা চীনের দৃষ্টিভঙ্গির ঠিক উল্টো। তবে বিবৃতিতে ‘এক চীন’ নীতি ও চীনের অভ্যন্তরে কোনো প্রকার সন্ত্রাসী কার্যক্রমের প্রতি তুরস্কের বিরোধিতা দুই দেশের সম্পর্কে অনেকটাই ভারসাম্য এনে দিবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।’

Facebook
Twitter
WhatsApp
Pinterest
Telegram

এই খবরও একই রকমের

রাস্তায় আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: এইচএসসি পরীক্ষায় প্রবেশপত্র না পেয়ে কলেজের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ করেন ৩৬ শিক্ষার্থী। শনিবার (২৯ জুন) ঠাকুরগাঁও সদরের রুহিয়া ডিগ্রি কলেজে বেলা

‘চকবাজারে আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ৬ ইউনিট’

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর চকবাজারে অবস্থিত সোলায়মান টাওয়ারে আগুন লেগেছে। শনিবার (২০ জানুয়ারি) সকাল ৯টার দিকে টাওয়ারের নিচ তলায় আগুন লাগার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৬টি

মর্গের আঙ্গিনায় আর্তনাদ, দিশেহারা নিহতদের স্বজনরা’

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বেইলি রোডে এক ভবনে ভয়াবহ আগুনের ঘটনায় নিহদের স্বজনদের আহজারিতে থমকে যাচ্ছে বেইলি রোড সহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গ। কোথায় গেলি

চাকরি পেয়েই বাড়িওয়ালির স্বামীকে নিয়ে পালালেন তরুণী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গ্রাম থেকে শহরে চাকরির পরীক্ষা দিতে এসেছিলেন এক তরুণী। সেখানে তার সঙ্গে আলাপ হয় এক নারী কনস্টেবলের। মেয়েটি নিজের গ্রামের জেনে তাকে বাড়িতে

শেখ হাসিনার চীন-ভারত ‘ব্যালেন্স ডিপ্লোমেসি’’

নিজস্ব প্রতিবেদক: টানা চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর শেখ হাসিনা আগামী ২১ ও ২২ জুন নয়াদিল্লিতে সরকারি সফরে যাবেন। এটি হবে তার প্রথম দ্বিপাক্ষিক

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা, হল ত্যাগের নির্দেশ

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে প্রতিষ্ঠিত রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: শাহ্ আজমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত