আজ সোমবার ,২৭শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৮শে জিলকদ, ১৪৪৩ হিজরি (বর্ষাকাল)

ভোর ৫:১৭

কারাদণ্ড থেকে রেহাই পেতে হয়েছিলেন মাজারের খাদেম

- Advertisement -
- Advertisement -

২০০৯ সালে মাদক মামলায় এক বছর ও ২০১২ সালে আরেক মাদক মামলায় দুই বছরের কারাদণ্ড হয়েছিল মো. আবুল কাশেমের (৫৮)। সব মিলিয়ে তিন বছরের কারাদণ্ড থেকে রেহাই পেতে তিনি ১০ বছর ধরে মাজারের খাদেম সেজে আত্মগোপনে ছিলেন।

অবশেষে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে কক্সবাজারের টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া মাজার এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আবুল কাশেম হ্নীলা ইউনিয়নের উত্তর দমদমিয়া এলাকার মৃত এজাহার মিয়ার ছেলে। আজ শুক্রবার বিকেলে তাঁকে আদালতে নেওয়া হবে। টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, ১০ বছর আগে কারাগার থেকে জামিনে বের হয়েছিলেন আবুল কাশেম। এর পর লম্বা দাড়ি ও চুল রেখে দমদমিয়া মাজারের খাদেমের কাজ নেন তিনি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কাশেম জানিয়েছেন, নিজেকে আড়াল করতেই তিনি ছদ্মবেশ ধারণ করেছিলেন। তিনি ওই মাজারেই বাস করতেন।

ওসি মো. হাফিজুর রহমান বলেন, আবুল কাশেম পলাতক থাকা অবস্থায় আদালত তাঁকে তিন বছরের সাজা দিয়েছিলেন। তবে ছদ্মবেশ ধারণ করায় কেউ তাঁকে চিনতে পারেনি। সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে ধরতে টেকনাফ থানা–পুলিশও ছদ্মবেশ ধারণ করেছিল। একপর্যায়ে পুলিশের সদস্যরা সফল হয়েছেন। আবুল কাশেমকে আজ শুক্রবার বিকেলের দিকে কক্সবাজার কারাগারে পাঠানো হবে।

- Advertisement -

সর্বশেষ খবরঃ

- Advertisement -

আপনার জন্য আরো খবর

উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে